ঝড়ের রাতে জন্ম, নাম হলো বুলবুলি

প্রজন্ম ডেস্ক

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাত থেকে বাঁচতে আরও অনেকের সঙ্গে আশ্রয়কেন্দ্রে এসেছিলেন অন্তঃস্বত্তা দুই নারী; সেখানেই তাদের কোল আলো করে এসেছে দুই কন্যাশিশু।

শনিবার বাগেরহাটের মোংলা ও পটুয়াখালীর কলাপাড়ায় জন্ম নেওয়া মেয়ে দুটির নাম রাখা হয়েছে ঝড়ের সঙ্গে মিলিয়ে- বুলবুলি।

মোংলা উপজেলার মিঠাখালী এটিসি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় আশ্রয় কেন্দ্রে রাত ১টার দিকে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন মা হনুফা।

সেখানে প্রসূতি মায়ের দেখভাল করেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত একজন পরিবার কল্যাণ পরিদর্শিকা। জন্মের পর ঝড়ের সঙ্গে মিলিয়ে সদ্যজাত শিশুটির নাম ‘বুলবুলি’ রাখা হয়।

খবর পেয়ে ওই আশ্রয়কেন্দ্রে গিয়ে মা-মেয়ের শারীরিক অবস্থার খোঁজখবর নেন মোংলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) নয়ন কুমার রাজবংশী, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক রাশেদুল হাসান।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাহাত মান্নান বলেন, মা ও মেয়ে দুজনেই সুস্থ আছেন। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শিশু ও মায়ের সার্বিক সহযোগিতার জন্য ২০ হাজার টাকা দেওয়া হবে।

বুলবুলির বাবা মোংলার মিঠাখালী ইউনিয়নের বাসিন্দা বায়েজিদ শিকদার একজন মৎস্যজীবী।

ইউএনও রাহাত মান্নান বলেন, “বায়েজিদ সাগরে মাছ ধরতে গিয়েছিল। সে এখনো ফেরেনি। তবে তার খোঁজ পাওয়া গেছে।”

এদিকে পটুয়াখালীর কলাপাড়ার জন্ম নেওয়া আরেকটি কন্যাশিশু নাম পেয়েছে বুলবুলি আক্তার বন্যা।

শনিবার দুপুরে উপজেলার নীলগঞ্জ আবাসনে আবুল কালাম ও হুমায়রা বেগমের কোলে আসে এই বুলবুলি।

নীলগঞ্জ এলাকার ১ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য প্রফুল্ল কুমার হালদার জানান, মা-মেয়ে দু’জনই সুস্থ আছে।

মন্তব্য