হেলিকপ্টার থেকে ফেলা হয়েছিলো ফোনগুলো…

প্রজন্ম ডেস্ক

শখের স্মার্টফোনটি হাত থেকে পড়ে যাওয়া নিয়ে চিন্তিত থাকেন কম বেশি সব গ্রাহক। স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো তাই স্মার্টফোন মজবুত করার দিকেও বাড়তি নজর দিয়ে থাকেন।

নতুন আইফোন ১১ কতোটা মজবুত তার পরীক্ষা চালিয়েছেন তিন ইউটিউবার। তবে ডিভাইটি ফেলা হয়েছে হেলিকপ্টার থেকে। আইফোন ১১-এর পাশাপাশি ভূমি থেকে এক হাজার ফুট উচ্চতায় ফেলা হয়েছে স্যামসাংয়ের গ্যালাক্সি এস১০ এবং নোকিয়া ৩৩১০– খবর ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিররের।

‘হাউ রিডিকিউলাস’ ইউটিউব চ্যানেলের ইউটিউবারদের পরীক্ষায় উঠে এসেছে আশ্চর্যজনক ফলাফল।

প্রথমে অ্যাপলের স্বচ্ছ আইফোন কেইসসহ আইফোন ১১ ভূমিতে ফেলেন ইউটিউবাররা। মাটিতে পড়ার পর দেখা গেছে ডিভাইসটি পুরোপুরি অকেজো না হয়ে এটির শুধু পেছনে গ্লাস প্যানেলটি ভেঙ্গে গেছে।

ওই দলের এক ইউটিউবার বলেন, “এটি চালু আছে! এটির পেছনে ভেঙ্গে গেছে, কিন্তু আমি বিশ্বাস করতে পারছি না যে ডিভাইসটি কাজ করছে, এটা অবিশ্বাস্য।”

পরবর্তীতে কেইস পরানো একটি গ্যালাক্সি এস১০ ভূমিতে ফেলে দলটি। দেখা যায় কেইস পরা থাকলেও ডিভাইসটির ক্যামেরা ভেঙ্গে অকেজো হয়ে গেছে।

পরবর্তীতে ২০০০ সালে বাজারে আসা নোকিয়া ৩৩১০ রেট্রো ফোন নিয়েও একই পরীক্ষা চালানো হয়। ‘ভাঙবে না এমন ফোন’ হিসেবেই পরিচিত ছিল নোকিয়ার এই ডিভাইসটি। হেলিকপ্টার থেকে মাটিতে ফেলার পরও পুরো অক্ষত অবস্থায় ফোনটি পেয়েছেন ইউটিউবাররা। ডিভাইসটিতে পরে ‘স্নেইক’ গেইমও খেলেছেন তারা।

ইউটিউবারদের পক্ষ থেকে বলা হয়, “এটা অসাধারণ ফলাফল। এক হাজার ফুট। ফোন নির্মাতাদের জন্য কড়তালি।”

  

মন্তব্য