পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ, চটপটি বিক্রেতাকে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দিল গ্রামবাসী

প্রজন্ম ডেস্ক

 ঢাকার কেরানীগঞ্জে পূর্ব বন্দ ডাকপাড়া এলাকায় ৫ বছর বয়সী এক শিশু ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

রোববার (২৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যার এ ঘটনায় মনির হোসেন (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এলাকাবাসী তাকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেন। মনির পেশায় চটপটি বিক্রেতা।

এদিকে ধর্ষণের শিকার শিশুটিকে রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বিশেষ কেয়ার ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

জানা যায়, শিশুদের বাড়ি গোপালগঞ্জ বজরগাছি গ্রামে। তার পরিবার কিছুদিন ধরে কেরানীগঞ্জের পূর্ব বন্দ ডাকপাড়া এলাকায় বসবাস করছে।

অন্যদিকে ধর্ষক মনির হোসেন টাঙ্গাইল জেলার মির্জাপুর এলাকার আটিয়া গ্রামের কোরবান আলীর ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কেরানীগঞ্জের বন্দডাকপাড় এলাকায় চটপটি বিক্রি করে আসছেন।

স্বজনরা জানান, রবিবার সন্ধ্যায় শিশু বাসার সামনে খেলা করছিল। কিন্তু তাকে সেখানে না দেখে খুঁজতে বের হন মাসহ স্বজনরা। কিছু সময় পর শিশুকে রাস্তায় উলঙ্গ অবস্থায় কান্নাকাটি করতে দেখা যায়। তখন জিজ্ঞাসা করলে শিশু ধর্ষণের ঘটনা জানায়। বাসার কাছেই চটপটি, ঝালমুড়ি বিক্রি করা মনির হোসেন এ ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে জানায়। ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয়রা মনির হোসেনকে খুঁজে বের করেন। গণপিটুনির পর তাকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই রফিকুল ইসলাম জানান, খবর পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে। অভিযুক্ত মনিরকে আটক করে থানায় নেয়া হয়েছে। চিকিৎসার জন্য শিশুকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ সর্ভিস সেন্টারে (ওসিসিতে) পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় শিশুর মা বাদি হয়ে মামলা দায়ের করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।

মন্তব্য