গত নির্বাচনে মাঠ ছেড়েছি, এবার ছাড়ব না : মির্জা আব্বাস

প্রজন্ম ডেস্ক

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস জানিয়েছেন, গত নির্বাচনে মাঠ ছেড়ে দেয়া ছিল আমাদের আত্মঘাতী ভুল সিদ্ধান্ত। আমরা সেখান থেকে শিক্ষা নিয়েছি এবার মাঠ ছেড়ে যাবো না।

শনিবার বেলা সাড়ে ১১টায় মির্জা আব্বাস মহিলা ডিগ্রি কলেজে ভোটদান শেষে তিনি একথা জানান। এ সময় সঙ্গে ছিলেন মহিলা দলের সভাপতি ও তার সহধর্মিণী আফরোজা আব্বাস।

মির্জা আব্বাস বলেন, কেন্দ্র দখলের পরও ভোটের ফলাফল কি হয়, তা শেষ পর্যন্ত আমরা দেখব। এরপর পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

নির্বাচন কেমন হচ্ছে জানতে চাইলে বিএনপির এই নেতা জানান, কোনো কেন্দ্রে সুষ্ঠু নির্বাচন হচ্ছে না। বিভিন্ন জায়গায় আমাদের লোকজনকে বের করে দিচ্ছে। যেসব কেন্দ্রে বাইরের পরিবেশ স্বাভাবিক সেখানে ভেতরে অশান্তি। ভোটারের ভোট তারাই দিয়ে দিচ্ছে।

এ সময় বেশ কয়েকটা কেন্দ্রের নাম উল্লেখ করে মির্জা আব্বাস বলেন, আপনারা এখন যান সেখানে অনিয়ম দেখতে পারবেন যেমন- পল্টন, শাহবাগ, সেগুনবাগিচা মহিলা কলেজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি কেন্দ্রের কথা জানান।

এই সব এলাকায় পোলিং এজেন্টদের বের করে দেয়া হয়েছে পাশাপাশি ভোটাররা ভোট দিতে গেলে তাদের ফিঙ্গার নিয়ে তারা জোড় করে ভোট দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।

শাহবাগ এলাকার বিএনপির মনোনীত মহিলা প্রার্থীর ওপর হামলার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানান তিনি।

ইভিএম সম্পর্কে মির্জা আব্বাস বলেন, এটি একটি ডিজিটাল সূক্ষ্ম কারচুপি। এই মেশিন ভারতের একটি কোম্পানি তৈরি করেছে কিন্তু তারা এটি ব্যবহার করছে না; কারণ তারা জানেন এর মাধ্যমে সুস্থ ভোট সম্পন্ন করা সম্ভব নয়। তাই ওদের ওয়েস্ট পণ্য আমাদের এই জায়গায় গুদামজাত করার জন্য পাঠিয়েছে।

কেন্দ্র থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় মির্জা আব্বাস পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন এখানে সরকারদলীয় প্রার্থীসহ বিভিন্ন কাউন্সিলর প্রার্থীদের লোকজন ভোট কেন্দ্রের ভেতরে অবস্থান নিয়েছেন। তাদের বের করে দিতে বলেন।

তিনি বলেন, তারা যদি এখানে থাকে তাহলে আমি যাওয়ার পরই তারা কেন্দ্র দখল করে নেবে। এরপর দায়িত্বরত পুলিশ আওয়ামী লীগ সমর্থিত মেয়র, কাউন্সিলর ও মহিলা কাউন্সিলর প্রার্থীর লোকজনকে কেন্দ্রের মাঠ থেকে বের করে দেন।

মন্তব্য