প্রিয়াঙ্কার খোলামেলা পোশাক নিয়ে খুবই খুশি তার মা

প্রজন্ম ডেস্ক

এই প্রথম নয়, এর আগেও একাধিকবার সমালোচনার মুখে পড়েছেন প্রিয়াঙ্কা। কখনও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সামনে কেন হাঁটুর ওপরে ওঠানো পোশাক পরেছেন প্রিয়াঙ্কা, তা নিয়ে জোর কটাক্ষ করা হয়। সমালোচনার মাঝে সব সময় নিজেকে সংযত রেখেই ক্যামেরার সামনে হাজির হন পিগি চপস। এসব নিয়ে তিনি মাথাই ঘামান না। নিজের মতো করে চলেন।

তবে সম্প্রতি গ্র্যামির মঞ্চে প্রিয়াঙ্কার নেকলাইন হাই স্লিট পোশাক নিয়ে নেট দুনিয়ায় সমালোচনার ঝড় ওঠে। অনেকেই প্রিয়াঙ্কাকে অশালীন আক্রমণ করছেন। এবার এবিষয়েই মুখ খুললেন প্রিয়াঙ্কার মা মধু চোপড়া।

প্রিয়াঙ্কা ও তার পোশাক নিয়ে সমালোচকদের জবাবে মধু চোপড়া বলেন, ‘যে সমস্ত লোকজন এধরনের মন্তব্য করে তাদেরকে কেউ চেনেও না। এনারা শুধু কম্পিউটার স্ক্রিনের মধ্যে নিজেদের লুকিয়ে রাখে। আমার মনে হয় এ ধরনের সমালোচকদের খুব বেশি গুরুত্ব দেওয়ার প্রয়োজন নেই। ওরা শুধুই গুরুত্ব পাওয়ার জন্যই এমনটা করে।’

মধু আরও বলেন, ‘আমার এই পোশাকটা ভীষণই পছন্দ হয়েছে। ও পোশাকটি পরার আগে আমাকে দেখিয়েছিল। প্রথমে আমি ভেবেছিলাম এধরনের পোশাক পরাটা একটু বেশিই ঝুঁকি নেওয়া হয়ে যাবে। তবে ও খুব সুন্দরভাবে ওটা সামল দিয়েছে। প্রিয়াঙ্কার পোশাক নিয়ে মা হিসেবে আমি খুবই খুশি।’

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রিয়াঙ্কাকে নিয়ে বারবার সমালোচনা নিয়ে মধু চোপড়া মন্তব্য করেছিলেন, ‘আমি প্রিয়াঙ্কাকে এভাবে বড় করেছি যাতে ও মানসিকভাবে দৃঢ় হয়। ও ওর মত করে জীবনযাপন করছে কারোর কোনো ক্ষতি তো করছে না। ওর জীবন ওর শরীর সবই ওর। তাই সবকিছুই ও ওর মত করেই চালাচ্ছে। আমি ওকে এটাই শিখিয়েছি। আমার মনে হয় এই নীতিই সকলের মনে চলা উচিত।’

প্রসঙ্গত, গ্র্যামির মঞ্চে প্রিয়াঙ্কার পোশাক নিয়ে বিভিন্ন লোকজন বিভিন্নভাবে আক্রমণ করেন। প্রিয়াঙ্কাকে লাজলজ্জাহীন মহিলা বলেও কটাক্ষ করা হয়। আবার প্রিয়াঙ্কার জন্য ভারতীয় মহিলারা লজ্জা পাচ্ছেন বলেও দাবি করেন কেউ কেউ।

মন্তব্য