পুরোনো প্রশ্নপত্রে পরীক্ষা, কেন্দ্র সচিবসহ পাঁচ শিক্ষককে অব্যাহতি

প্রজন্ম ডেস্ক

যশোরের চৌগাছায় ২০১৮ সালের প্রশ্নে এসএসসি পরীক্ষা নেয়ায় চৌগাছা সরকারি শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্র সচিবসহ কেন্দ্র কমিটির পাঁচ শিক্ষককে পরীক্ষার দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা আনিছুর রহমানকে নতুন কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম।

অব্যাহতিপ্রাপ্তরা হলেন, চৌগাছা সরকারি শাহাদৎ পাইলট সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের সচিব ও একই স্কুলের প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান, কেন্দ্র কমিটির সদস্য যথাক্রমে একই স্কুলের সিনিয়র শিক্ষক আব্দুল জলিল, সিনিয়র শিক্ষক সালমা খাতুন, সহকারী শিক্ষক লাকি আক্তার ও ক্রীড়া রবিউল ইসলাম।

অব্যাহতিপ্রাপ্ত কেন্দ্র সচিব ও চৌগাছা সরকারি শাহাদৎ পাইলট মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান বলেন, সোমবার প্রথমদিনের বহু নির্বাচনী (সৃজনশীল) পরীক্ষা শেষে দেখা যায় কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী সলুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, স্বরূপদাহ মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও অন্য একটি স্কুলের ১৯ জন রেগুলার পরীক্ষার্থীকে ২০১৮ সালের প্রশ্নে (যে প্রশ্নে ক্যাজুয়ালদের নেয়ার কথা) পরীক্ষা নেয়া হয়েছে এবং ২ জন ক্যাজুয়াল পরীক্ষার্থীকে ২০২০ (রেগুলারদের নেয়ার কথা) পরীক্ষা নেয়া হয়েছে। বিষয়টি জানতে পেরে আমি যশোর বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক, চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবগত করি। পরে তাদের লিখিত পরীক্ষা সঠিক প্রশ্নে নেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, বিষয়টি সম্পূর্ণ অনিচ্ছাকৃত ভুল। এতে শিক্ষার্থীদের রেজাল্টে যেন কোনো প্রভাব না পড়ে বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রকের সঙ্গে কথা বলে নিশ্চিত করা হয়েছে।

আজিজুর রহমান আরও বলেন, এ ঘটনায় আমিসহ পরীক্ষা কমিটির পাঁচ সদস্যকেই অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। উপজেলা বিআরডিবি কর্মকর্তা আনিছুর রহমানকে কেন্দ্র সচিবের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। চৌগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জাহিদুল ইসলাম বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মন্তব্য