ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধন মার্চে

প্রজন্ম ডেস্ক

দেশের প্রথম ছয় লেন বিশিষ্ট এক্সপ্রেসওয়ে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক আগামী মাসে (মার্চে) উদ্বোধন করা হবে বলে জানিয়েছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। এছাড়া ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়ক চার লেন উন্নয়নের কাজ জুনের মধ্যে শেষ হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

বুধবার (৫ ফেব্রুয়ারি) সচিবালয়ে দফতরপ্রধান এবং প্রকল্প পরিচালকদের সঙ্গে চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের অগ্রগতি পর্যালাচনা ও নাগরিকসেবা প্রদানবিষয়ক সভা শেষে এ তথ্য জানান তিনি।

মন্ত্রী বলেন, মার্চে উদ্বোধন হচ্ছে দেশের প্রথম ছয় লেনবিশিষ্ট এক্সপ্রেসওয়ে ঢাকা-মাওয়া মহাসড়ক। এক্সপ্রেসওয়ে একেবারে ফরিদপুরের ভাঙ্গা পর্যন্ত। প্রধানমন্ত্রীকে সশরীরে এটি উদ্বোধনের অনুরোধ জানিয়ে সারসংক্ষেপ পাঠানো হয়েছে। তিনি যেদিন সময় দেবেন, সেদিনই উদ্বোধন করা হবে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, যেসব ঠিকাদার সময়মতো সড়ক নির্মাণ ও মেরামত কাজ শেষ করবেন না কিংবা কাজ ধীরে করবেন তাদের কার্যাদেশ বাতিল করা হবে। প্রয়োজনে তাদের কালো তালিকাভুক্ত করা হবে।

সরকার প্রায় তিন লাখ দক্ষ গাড়িচালক তৈরির উদ্যোগ নিয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনকে (বিআরটিসি) এ বিষয়ে প্রকল্প গ্রহণের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘প্রতি মাসে বিআরটিসির এক কোটি টাকা বকেয়া পরিশোধ করা হচ্ছে। লিজ দেয়ার ক্ষেত্রে তাদের সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে।‘

কর্ণফুলী টানেল প্রকল্পের বাস্তবায়ন অগ্রগতি ৫১ শতাংশ জানিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এক কিলোমিটার ২২৮ মিটারের বোরিং সম্পন্ন হয়েছে।’

সভায় সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম, সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী মো. আশরাফুল আলম, বিআরটিএর চেয়ারম্যান মো. কামরুল আহসান, বিআরটিসির চেয়ারম্যান মো. এহছানে এলাহী, ডিটিসিএর নির্বাহী পরিচালক খন্দকার রাকিবুর রহমানসহ প্রকল্প পরিচালকরা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য