সুনামগঞ্জে শিম ক্ষেতে মিলল নিখোঁজ গৃহবধূর মাটিচাপা লাশ

প্রজন্ম ডেস্ক

 সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুরে শিমখেতে মাটিচাপা অবস্থায় মদিনা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধুর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তিনি উপজেলার গড়েরগাও গ্রামের দিনমজুর আব্দুস ছত্তারের স্ত্রী।

শনিবার (১৫ ফেব্রুয়ারি) রাতে উপজেলার সলুকাবাদ ইউনিয়নের লতারগাও পশ্চিমপাড়া এলাকার একটি শিমখেতের বাগান থেকে তার উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা এ ঘটনাটিকে পরিকল্পিত হত্যাকান্ড বলে জানিয়েছেন।

এলাকাবাসী জানিয়েছেন, মদিনা আক্তার নামের ওই গৃহবধু কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন থাকায় এক সপ্তাহ পূর্বে বাড়ি থেকে নিখোঁজ হয়েছিলেন বলে পরিবার সূত্রে জানা গেছে।

পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গড়েরগাও গ্রামের দিনমজুর আব্দুস ছত্তারের স্ত্রী মদিনা বেগম (৩৫) গত ৭ ফেব্রুয়ারি বাড়ি থেকে নিখোঁজ হন। ওই সময় তার স্বামী ভোলাগঞ্জে কোয়ারিতে শ্রমিকের কাজ করছিলেন। খবর পেয়ে তিনি পরদিন বাড়ি এসে স্ত্রীকে খুঁজতে থাকেন। শনিবার বিকেলে পার্শবর্তী লতারগাও পশ্চিমপাড়ার জয়নাল আবেদিনের শিম খেতে মাটির নিচে দেবে থাকা একটি ওড়নার অংশ দেখতে পান এলাকাবাসী। তারা এগিয়ে গিয়ে দেখেন মাটিচাপা অবস্থায় এক নারীর মৃতদেহ রয়েছে। তারা তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশকে বিষয়টি অবগত করলে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য নিয়ে আসে।

স্থানীয় ইউপি সদস্য জাকির হোসেন বলেন, পরিবারের লোকজন জানিয়েছেন ওই নারী কিছুটা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। তিনি এক সপ্তাহ আগে নিখোঁজ হন। তার স্বামী একজন দিনমজুর। কোন দুষ্কৃতিকারী তাকে হত্যা করে লাশ মাটিতে পুঁতে রেখে চলে গেছে।

বিশ্বম্ভরপুর থানার ওসি মাহবুবুর রহমান বলেন, শিমখেত থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সুনামগঞ্জ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

মন্তব্য