ফুটবলের স্বার্থে নির্বাচন না করার সিদ্ধান্ত আমার : রুহুল আমিন

প্রজন্ম ডেস্ক

দীর্ঘ দুই বছরের বেশি সময় ধরে বাফুফে নির্বাচনের মাঠ চষে বেড়ানোর পর গতকাল রোববার সন্ধ্যায় আচমকাই সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন তরফদার মো. রুহুল আমিন। সেই ঘোষণা তিনি দিয়েছেন, বাফুফের বর্তমান সভাপতি কাজী মোহাম্মদ সালাউদ্দিনকে ফোন করেই।

সভাপতি পদে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে এতদিন প্রচারণা চালিয়ে কেন সরে গেলেন তরফদার রুহুল আমিন? গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় প্রশ্ন ছিল এটি।

আজ (সোমবার) দুপুরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করে সেই প্রশ্নের জবাব দিয়েছেন জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল সংগঠক পরিষদের চেয়ারম্যান এবং ফুটবল ক্লাব সমিতির চেয়ারম্যান তরফদার রুহুল আমিন।

বনানীতে নিজ ব্যবসায়িক কার্যালয়ে জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেছেন, ‘বাফুফের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চরম অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। কাজী সালাউদ্দিনের পক্ষের লোকজন নানা ধরনের কথা বলছেন। আমার পক্ষের লোকজনও নানা ধরনের কথাবার্তা বলছেন।

তাই মনে হয়েছে, সভাপতি পদে আমার নির্বাচন করাটা ফুটবলের জন্য শুভ হবে না। আমি সভাপতি পদে নির্বাচন করব না, এটা আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। নির্বাচন সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। আমার সংগঠনের কেউ করলেও করতে পারে। আর আমি সভাপতি পদে নির্বাচন না করলেও নির্বাচনী মাঠ ছাড়ছি না। কারা কোন পদে নির্বাচন করবে সেটা আমরা পরবর্তীতে ঠিক করব।’

প্রশ্ন ছিল, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি, এটার কোনো প্রভাব এখানে পড়েছে কি না? জবাবে রুহল আমিন বলেছেন, ‘না, ওটা রাজনৈতিক বিষয়, এটা ক্রীড়াঙ্গনের বিষয়। দুটোর মধ্যে কোনো যোগসাদৃশ্য নেই। এটা সম্পূর্ণই আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।’

সংবাদ সম্মেলনে বাফুফের বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন মহিসহ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবলের সংগঠক ও কমকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য