‘দিল্লি দাঙ্গায় আম আদমির কেউ জড়িত থাকলে দ্বিগুণ শাস্তি’- কেজরিওয়াল

প্রজন্ম ডেস্ক

 নাগরিকত্ব আইন নিয়ে সহিংসতার আগুনে পুড়ছে দিল্লি। গত কয়েকদিন ধরে চলা বিক্ষোভে উগ্রবাদীদের হামলায় প্রায় ৩৯ জনের নিহতের খবর জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো। এদিকে সহিংসতা থামাতে বিজেপি সরকার ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছেন দেশটির বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা।

এই সংঘর্ষে আম আদমি পার্টি’র (আপ) কেউ জড়িত থাকলে তাকে দ্বিগুণ শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে বলে জানিয়েছেন পার্টির প্রধান ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। বৃহস্পতিবার দিল্লিতে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

ভারতের দ্য ইন্টেলিজেন্স ব্যুরো’র এক সদস্য অঙ্কিত শর্মা নিহতের ঘটনায় আম আদমি পার্টির নেতা তাহির হুসাইনের নাম উঠে এসেছে। এ বিষয়ে কেজরিওয়ালের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তিনি বলেন: সহিংসতায় মদতে যদি আমার মন্ত্রিসভার কেউ জড়িত থাকেন, তাহলে তাকে শাস্তি দেওয়া হবে। দলের কেউ জড়িত থাকলে দ্বিগুণ শাস্তি দেওয়া হবে।

নিহত অঙ্কিতের পরিবারের পক্ষ থেকে তার নিহতের ঘটনায় তাহিরকে মদদ দেওয়ার জন্য অভিযুক্ত করা হয়েছে। দিল্লি ঘটনায় নাম জড়াতেই তাহির হোসেন কে দল থেকে বাদ দিয়েছেন কেজরিওয়াল।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়া টুডে জানিয়েছে, দিল্লির সহিংসতার ঘটনায় হতাহত ব্যক্তিদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে। নিহত বয়স্ক পরিবারকে ১০ লাখ ও নিহত নাবালক পরিবারকে ৫ লাখ রুপি করে আর্থিক সহায়তা দেয়া হবে।

মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল বলেছেন, সহিংসতায় যারা স্থায়ীভাবে অক্ষম হয়ে গেছেন, তাদের প্রত্যেককে দেয়া ৫ লাখ রুপি। গুরুতর আহতরা পাবেন ২ লাখ। স্বল্প আহতরা ২০ হাজার রুপি করে পাবেন।

দিল্লি সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী, সহিংসতায় যারা পিতা-মাতাকে হারিয়েছেন, তারা পাবেন ৩ লাখ রুপি করে। যাদের ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ পুড়ে গেছে তারা পাবে ৫ লাখ করে রুপি। মালামাল ক্ষতির জন্য ভাড়াটিয়ারা পাবেন ১ লাখ এবং মালিকরা পাবেন ৪ লাখ।

যাদের ঘরবাড়ি সম্পূর্ণ পোড়েনি কিন্তু মালামালের ক্ষতি হয়েছে তারা আড়াই লাখ, যাদের দোকান-পাট লুট করে নেয়া হয়েছে তারা ৫ লাখ এবং যাদের ঘরবাড়ি পুরোপুরি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তাদেরকে জরুরি ভিত্তিতে ২৫ হাজার রুপি করে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন কেজরিওয়াল।

সহিংসতায় যারা গৃহপালিত পশু হারিয়েছেন তারা পশুপ্রতি ৫ হাজার রুপি, সাধারণ রিকশা ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ার জন্য ২৫ হাজার এবং যাদের ই-রিকশা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে তারা ৫০ হাজার রুপি আর্থিক সহায়তা পাবেন।

দাঙ্গায় আহতদের বিনা খরচে বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করিয়ে চিকিৎসা দেয়ার ঘোষণাও দিয়েছেন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছেন, সহিংসতায় যারা আহত হয়েছেন তারা দিল্লি সরকারের ফারিশতে স্কিমের আওতায় বিনা খরচে যেকোনো বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে পারবেন।

পাশাপাশি ভুক্তভোগীদের খাদ্য সরবরাহেরও ঘোষণা দিয়েছেন কেজরিওয়াল।

মন্তব্য