সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোকাররম টিপু’র মৃত্যুঃ শোক

সেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মোকাররম টিপু’র মৃত্যুঃ শোক

পার্থ প্রতীম দেবনাথ (রতি)

যশোর জেলা সেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক আহবায়ক মোকাররম হোসেন টিপু গতকাল দিবাগত রাত আনুমানিক ৩টার দিকে ভারতের একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেছেন, ইন্নালিল্লাহি……………………রাজিউন। মৃত্যুকালে তিনি অসংখ্য আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্খী রেখে গেছেন।

রাজনৈতিক জীবনে মোকাররম হোসেন টিপু ওরফে জি এস টিপু ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ এবং যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন। আওয়ামীলীগের জন্য তিনি ছিলেন নিবেদিত একজন। মোকাররম হোসেন টিপু ওরফে জিএস টিপু যশোর জেলা ছাত্রলীগের সম্পাদক ছিলেন।

আওয়ামীলীগ নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা খান টিপু সুলতানের হাত ধরে তিনি ছাত্রলীগে নাম লেখান। ১৯৭৬ সাল থেকে ১৯৭৮ সাল পর্যন্ত তিনি এই পদে ছিলেন। ১৯৮০ সালে সরকারি এম এম কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে সাধারন সম্পাদক অর্থাৎ জি এস নির্বাচিত হন। তৎকালীন সরকার আটজন ছাত্রকে ঐ কলেজ থেকে ছাত্রলীগের রাজনীতিতে সম্পৃক্ত থাকার দায়ে ফোর্স টিসি দেয়। এরপর তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলা বিষয়ে অনার্স ভর্তি হন। সূর্যসেন হলের ছাত্রলীগ নেতা হিসেবে তিনি দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৯২ সাল থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। এরপর ১৯৯৬ সাল পর্যন্ত তিনি যশোর জেলা আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রতিষ্ঠাতা আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পান। এছাড়া বর্তমান কমিটির পূর্বের আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় উপ কমিটির সহ-সম্পাদক হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। তিনি যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ছিলেন।

২০০৮ সাল থেকে পরবর্তী ৭ বছর যশোরের মুসলিম একাডেমি স্কুলের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের গুরু দায়িত্ব পালন করেন তিনি। ব্যক্তি জীবনে তিন কন্যা ও স্ত্রী সেলিনা হোসেন কে নিয়ে তার পরিবার। তার বড় কন্যা জয়িতা হোসেন কম্পিউটার সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার। রাজধানী ঢাকায় একটি বিদেশী ফার্মে চাকুরি করেন। মেজ মেয়ে প্রিয়তা হোসেন ম্যাথমেটিক্সে যবিপ্রবি’র ছাত্রী।

ছোট কন্যা আনিশা হোসেন যশোর দাউদ পাবলিক স্কুলের ছাত্রী। রাজধানী ঢাকা ও যশোরে তিনি ঠিকাদারি ব্যবসায় সম্পৃক্ত ছিলেন। পাশাপাশি তিনি একজন আওয়ামী লীগের নিবেদিত কর্মী ছিলেন। আওয়ামী লীগ নেতা মোকাররম হোসেন টিপু’র মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও তার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন,

যশোর জেলা আওয়ামীলীগের বারবার নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক শাহীন চাকলাদার, যশোর সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের বারবার নির্বাচিত সভাপতি মোহিত কুমার নাথ,

সাধারণ সম্পাদক শাহারুল ইসলাম, যুবনেতা তৌহিদ চাকলাদার ফন্টুসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সেচ্ছাসেবক লীগের বিভিন্ন স্তরের নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য