খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বিএনপির বিক্ষোভ ১১ মার্চ

প্রজন্ম ডেস্ক

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার শারীরিক অবস্থা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘সরকারকে বলবো, অবিলম্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। এই দাবিতে আমরা বুধবার (১১ মার্চ) সারাদেশের মহানগর ও জেলা সদরে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিল করবো।’

শনিবার (৭ মার্চ) রাতে গুরশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলের স্থায়ী কমিটির বৈঠকের পর সাংবাদিকদের ব্রিফিংকালে মির্জা ফখরুল সব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে পরিবারের সদস্যরা আবারও দেখা করেছেন জানিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘তারা বেরিয়ে এসে যা বলেছেন, তা উদ্বেগজনক। তারা বলেছেন, এতটুকু খালেদা জিয়ার শারীরিক উন্নতি হয়নি, আরও অবনতির দিকে যাচ্ছে। খালেদা জিয়াকে আর ফিরে পাবো কি না-তা নিয়ে আমরা নিশ্চিত নই। এটা এত বেশি উদ্বেগের বিষয় যে, গোটা জাতিকে উদ্বিগ্ন করে তুলেছে।’

খালেদা জিয়ার কারামুক্তির ইস্যুতে সরকারের সমালোচনা করে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা বারবার বলেছি, চেষ্টা করছি, আইনি ব্যবস্থা নিয়েছি। রাজনৈতিক ব্যবস্থা নিয়েছি। কিন্তু সরকার এ ব্যাপারে এতটুকু কর্ণপাত করছে না।’

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

লন্ডন থেকে স্কাইপে দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এই বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেন, মওদুদ আহমদ, জমির উদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, নজরুল ইসলাম খান, আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী, সেলিমা রহমান, ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু প্রমুখ।

মন্তব্য