ফোন না ধরায় চালককে জেলে দিলেন ম্যাজিস্ট্রেট

প্রজন্ম ডেস্ক

ফোন না ধরায় রাগ করে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের এক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তার গাড়ি চালককে চার মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

রোববার সকালে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সকাল থেকে ডিএনসিসির সব ধরনের পরিবহন বন্ধ করেছে শ্রমিক ইউনিয়ন। পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নসহ করপোরেশনের কর্মচারীরা ওই নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও তার স্বামীকে উত্তর সিটি করপোরেশনে অবরুদ্ধ করে রাখে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ডিএনসিসির পরিবহন ইউনিয়নের এক নেতা জানিয়েছেন, ‘সকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিনিয়া জিন্নাতের গাড়ি চালক মো. ফুরকান গাড়িতে মোবাইল রেখে পাশের একটি দোকানে চা খেতে যান। ওই সময় জেরিন জিন্নাত চালককে ফোন দিয়ে পাননি। এতে তিনি রাগান্বিত হন এবং পরে পুলিশ ডেকে তাকে চার মাসের দণ্ড দিয়ে কারাগারে পাঠান।’

ওই নেতা জানান, ‘এ ঘটনা জানাজানি হলে পরিবহন শ্রমিক ও অন্যান্য বিভাগের কর্মচারীরা কর্মবিরতি ঘোষণা করি। কর্মকর্তাদের গাড়ি, বর্জ্য গাড়িসহ সব ধরনের গাড়ি চালানো বন্ধ করা হয়। পরে সন্ধ্যায় বিশেষ আদালত ফুরকানের জামিন মঞ্জুর করেন। ’

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের জনসংযোগ কর্মকর্তা এ এস এম মামুন জানান, সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার জন্য চালককে চার মাসের দণ্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রট।

এ বিষয়ে ম‌্যাজিস্ট্রেট জিনিয়া জিন্নাত রাইজিংবিডিকে বলেন, ‘সরকারি কাজে বাধা দেওয়ায় প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার অনুমতিক্রমে তাকে কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। রাগের বশে না।’

মন্তব্য