করোনা : বাসা-দোকান ভাড়া মওকুফের দাবি

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনা আতঙ্কে সারাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্য প্রায় বন্ধের উপক্রম। নিম্ন আয়ের মানুষের আয়-রোজগার বন্ধ। এমন পরিস্থিতিতে ঢাকা, চট্টগ্রামসহ সারাদেশের ভাড়াটিয়াদের বাসাভাড়া, দোকানভাড়া, বিদ্যুৎ বিল, গ্যাস বিলসহ সব ধরনের ইউটিলিটি বিল মওকুফের দাবি জানিয়েছে ভাড়াটিয়া পরিষদ।

শনিবার (২১ মার্চ) বিকেলে ভাড়াটিয়া পরিষদের সভাপতি মো. বাহারানে সুলতান বাহার ও সাধারণ সম্পাদক খাতুনে জান্নাত ফাতেমা খানম এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি জানান।

তারা বলেন, ঢাকা শহরের প্রায় ৯০ শতাংশ মানুষ ভাড়া বাসায় থাকেন। জীবন ও জীবিকার তাগিদে তাদের প্রতিনিয়ত কর্মক্ষেত্রে যেতে হয়। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে সারাবিশ্বে লকডাউন চলছে। বাংলাদেশেরও পরিস্থিতি অনেকটাই লকডাউনের মতো। এ অবস্থায় জনশূন্যতার কারণে রাজধানীসহ সারাদেশে ব্যবসা-বাণিজ্য স্থবির হয়েছে পড়েছে।

যে শ্রমিকরা দৈনিক ভিত্তিতে কাজ করতেন তারা বেকার হয়ে পড়েছেন। মরার ওপর খাঁড়ার ঘা হয়ে দেখা দিয়েছে নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতি। একদিকে করোনাভাইরাসের আতঙ্ক অন্যদিকে অর্থাভাব। সাধারণ মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। এ পরিস্থিতি থেকে জনগণকে কিছু রেহাই দেয়ার জন্য আমরা সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই ভাড়াটিয়াদের বাসাভাড়া ও দোকানভাড়া মওকুফ করা হোক। বাড়িওয়ালাদের সরকারি ট্যাক্সে ছাড় দিয়ে তাদের ক্ষতি পুষিয়ে দেয়া যেতে পারে।

তারা আরও বলেন, সারাবিশ্বে করোনাভাইরাস মহামারি আকার ধারণ করলেও আমাদের দেশে এখনো পরিস্থিতি ততটা খারাপ হয়নি। আমরা সরকারের পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়ে বলতে চাই, স্বল্প আয়ের দেশের জনগণকে রেহাই দিতে ভাড়া মওকুফ করা হোক। তাহলে জনগণ কিছুটা হলেও রেহাই পাবে।

মন্তব্য