১৭ বছরের ছেলেকে বিয়ে দিয়ে ধরা খেলেন বাবা

প্রজন্ম ডেস্ক

চলমান দুর্যোগের মধ্যেও মাত্র ১৭ বছর বয়সী ছেলের বিয়ে দিতে গিয়ে বাবা ও কাজী গ্রেফতার হয়ে এখন জেলহাজতে। শুক্রবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ঈশ্বরদীর মুলাডুলি ইউনিয়নে। এ ঘটনায় মুলাডুলি ইউনিয়নের কাজী সিদ্দিকুর রহমান এবং ছেলের বাবা ইসরাইল হোসেন খাঁর বিরুদ্ধে ঈশ্বরদী থানায় ওই রাতে মামলা দায়ের হয়েছে।

আটকদের শনিবার (২৮ শে মার্চ) সকালে পাবনা জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ঈশ্বরদী থানার ওসি (তদন্ত) অরবিন্দ সরকার এ ঘটনা নিশ্চিত করেছেন।

ঈশ্বরদী থানা সূত্রে জানা যায়, শুক্রবার বিকেলে মুলাডুলি ইউনিয়নের খাঁপাড়া গ্রামে সিদ্দিকুর রহমান কাজীর বাড়িতে বাল্যবিয়ে দেয়া হচ্ছে এমন সংবাদ পেয়ে পুলিশ সেখানে হানা দেয়। এ সময় পুলিশ জানতে পারে ওই কাজী গত ২৪ মার্চ মুলাডুলির গোয়ালবাথান গ্রামের ইসরাইল হোসেন খাঁর ১৭ বছরের ছেলে সাজেদুলের সঙ্গে সাঁথিয়া থানার মোবারক হোসেনের মেয়ে ইভা খাতুনের বিয়ে দিয়েছেন। শুক্রবার কাজীর বাড়ি থেকে বিয়ে তুলে দেয়ার আয়োজন করা হয়।

এ ঘটনায় পুলিশের এসআই হাসান আইন বহির্ভুত বিয়ে দেওয়ার অভিযোগে অভিযুক্ত কাজী সিদ্দিকুর রহমান এবং ছেলের বাবা ইসরাইল খাঁকে আটক করে থানায় নিয়ে আসেন। পুলিশ জানায়, আইনগতভাবে ছেলের বিয়ের বয়স না হলেও মেয়ের বিয়ের বয়স ঠিকই ছিল। তাই মেয়ের বাবাকে আটক করা হয়নি।

রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিহাব রায়হানকে জানানো হলে তিনি আইনের বিধান অনুযায়ী নিয়মিত মামলা রুজু করে জেল হাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

মন্তব্য