একে একে এসে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে গেলেন কর্মহীনরা

প্রজন্ম ডেস্ক

খোলা জায়গায় নিরাপদ দূরত্বে রাখা খাদ্যসামগ্রীর প্যাকেট। এক এক করে সেই প্যাকেট নিয়ে গেলেন কর্মহীন ও হতদরিদ্ররা। ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় এই প্রথম কোনো ধরনের আনুষ্ঠানিকতা ছাড়া দেয়া হলো খাদ্যসামগ্রী।

জেলা শহরের পীরবাড়ি এলাকার ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলামের উদ্যোগে শতাধিক মানুষের কাছে এই খাদ্যসামগ্রী তুলে দেয়া হয়। খাদ্যসামগ্রীর মধ্যে ছিল চাল, আটা, আলু ও সাবানসহ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য।

রফিকুল ইসলাম ওয়ালটন ইলেক্ট্রনিক্সের একজন ডিস্ট্রিবিউটর। শনিবার বেলা ১১টার দিকে পীরবাড়ি এলাকায় তার মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠান মাইশা এন্টারপ্রাইজের সামনের খোলা জায়গা থেকে কর্মহীন ও হতদরিদ্ররা খাদ্যসামগ্রী নিয়ে যান। রফিকুল ইসলাম নিজে দাঁড়িয়ে থেকে খাদ্যসামগ্রী নেয়ার কার্যক্রম তদারকি করেন।

রফিকুল ইসলাম বলেন, করোনভাইরাসের প্রভাবে সারাবিশ্বে কর্মহীন হয়ে পড়েছেন খেটেখাওয়া মানুষগুলো। এদের অনেকেই কারো কাছে লজ্জায় হাত পাততে পারছেন না। তারা সবাই পরিস্থিতির শিকার। বৈশ্বিক এই দুর্যোগকালে আমাদের সবার উচিত এসব খেটে খাওয়া মানুষগুলোর পাশে দাঁড়ানো।

এ সময় রফিকুল ইসলামের সঙ্গে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর জামাল হোসেন, জেলা বাস মালিক সমিতির নেতা হানিফ মিয়া, সমাজকর্মী একরামুল হক রুবেল ও মুজিবুর রহমানসহ প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য