করোনায় ভয় নেই মনীষার

প্রজন্ম ডেস্ক

ক্যান্সার জয় করে ফিরেছেন তিনি। অনেকের জন্য হয়েছেন অনুপ্রেরণা। তিনি বলিউড অভিনেত্রী মনীষা কৈরালা।

ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ করার সময় প্রায় ছ’মাস গৃহবন্দি ছিলেন। তাই করোনার জন্য লকডাউনে ঘরবন্দী হয়ে থাকতে তার তেমন কষ্ট হচ্ছে না। কারণ বিষয়টা তার কাছে মোটেও নতুন কিছু নয়।

সম্প্রতি মুম্বাইয়ে সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মনীষা বলেন, ‘ছয় মাস যখন ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করেছি তখন ওষুধ কাজ করবে কি না সেটাও জানতাম না! সেই গৃহবন্দি দশা থেকেই আমি এক দিনের জন্য বাঁচতে শিখেছি। পরের দিনের কথা ভাবি না। তাই এ বারের লকডাউন আমায় অবাক করেনি।’

ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করার মানসিকতা করোনাকে জয় করার সাহস দিচ্ছে মনীষাকে। তিনি মনে করেন, ক্যান্সার যাকে আক্রমণ করেছে তার কাছে করোনা ভয়ের নয়। কারণ তারা লড়াই করতে জানে। তারা করোনা জয়ের মন্ত্র জানে।

নেলসন ম্যান্ডেলার প্রসঙ্গ এনে বলেছেন মনীষা, ‘বহু বছর কেবল একটা ঘরের মধ্যে বন্দি থেকেছেন ম্যান্ডেলা। আমাদের প্রত্যেকের মধ্যে সেই ক্ষমতা রয়েছে। ভয় বা বিরক্তি এলেও এখন বাড়ির ভেতরে থাকা প্রত্যেকের পক্ষে ভীষণ জরুরি।’

তবে লকডাউন নিয়ে অবাক না হলেও ভয় পেয়েছিলেন মনীষা। বাড়ির বয়স্কদের কথা ভেবে। কেমন করে রাখবেন তাদের? তবে জানিয়েছেন, নিয়ম মেনে বাড়ির পরিবেশ এখন অনেকটাই স্থিতিশীল।

নিজের ছাদের ছোট বাগানেই দিনের বেশির ভাগ সময় কাটিয়ে দিচ্ছেন তিনি। বললেন, ‘লকডাউনে আর দূষণ নেই। আকাশ পরিষ্কার। ভোর হলেই শুনছি চড়াই পাখির আওয়াজ। সে দিনই দেখলাম আমার বাগানে দুটো চড়াই বাসা বাঁধছে। আমি বাগানে শুয়ে আকাশ দেখে সময় কাটাচ্ছি।’

নিয়মিত যোগাসন ও শরীরচর্চা করে শরীর ও মনকে তাজা রাখছেন মনীষা। এদিকে সম্প্রতি একটি জনপ্রিয় ওয়েব প্ল্যাটফর্মে মুক্তি পেয়েছে মনীষার ছবি ‘মসকা’।

মন্তব্য