আদরের সন্তানকে কোলে নিতে ভয় হয়, আতঙ্কে ঘুম হয় না

প্রজন্ম ডেস্ক

দেশব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে নানা পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার। সরকারি নির্দেশনা বাস্তবায়নে ও করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নেয়া হয়েছে ব্যাপক প্রস্তুতি। এরপরও ঘরে থাকছে না মানুষ।

করোনা প্রতিরোধে নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন কাশিয়ানী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাব্বির আহমেদ। রাতদিন ছুটে চলছেন মানুষকে করোনার সংক্রমণ থেকে রক্ষা করার জন্য। ইউএনও সাব্বির কখনও ছুটছেন জনসাধারণকে সচেতন করতে; আবার কখনও রাতের আঁধারে গৃহবন্দি মানুষের কাছে খাদ্যসামগ্রী পৌঁছে দিচ্ছেন। সেই সঙ্গে ছুটে চলছেন বিভিন্ন হাটবাজার মনিটরিং করতে।

পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুক ও মুঠোফোনের মাধ্যমে উপজেলার সব শ্রেণিপেশার মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ করছেন তিনি। জীবনের ঝুঁকি জেনেও অবিরাম ছুটে চলছেন ইউএনও।

এতদিন কাশিয়ানী উপজেলায় করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি। গতকাল শনিবার (১৮ এপ্রিল) প্রথমবারের মতো কাশিয়ানী উপজেলায় চারজন করোনা রোগী শনাক্ত হয়।

এ ঘটনার পরই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) সাব্বির আহমেদ ‘ইউএনও কাশিয়ানী’ নামের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে একটি আবেগঘন পোস্ট দেন।

ফেসবুক পোস্টে ইউএনও লিখেছেন, ‘আমরা আমাদের দায়িত্ব পালন করছি, আপনি নাগরিক হিসেবে রাষ্ট্র ও দেশের প্রতি দায়িত্ব পালন করছেন তো? তাহলে আইন মেনে ঘরে থাকুন, পরিবার ও সমাজকে নিরাপদে রাখুন। এক বছর ১০ মাসের আদরের শিশু সন্তানের কাছে যেতে ইদানিং ভয় হয়; তার নিরাপত্তার জন্য কোলে নিতে পারি না। আমার নিজ উপজেলা শিবচর লকডাউন। আমার প্রিয়মুখ বাবা-মাকে দেখি না বহুদিন।

প্রতিদিন পাঁচ শতাধিক ফোনকল ও ফেসবুকে মেসেজ পাই। হাটবাজারে, মাঠেঘাটে অসচেতন মানুষের অহেতুক ঘোরাঘুরি। নিষেধাজ্ঞা না মেনে দোকানপাট খোলা রাখা। ঢাকাসহ বিভিন্ন এলাকা থেকে আসা মানুষের হোম কোয়ারেন্টাইন না মানার প্রবণনতা। এমন অনেক অনেক অভিযোগ মধ্যরাতেও আমাকে ঘুমাতে দেয় না।’

ইউএনও সাব্বির আহমেদ আরও লিখেছেন, ‘আতঙ্ক নিয়ে প্রতিদিন ঘুমাতে যাই এই প্রত্যাশা নিয়ে; ঘুম থেকে উঠে কোনো এক নতুন ভোর দেখব। কিন্তু তা আর হয়ে ওঠে না। আমাদের সবটুকু সক্ষমতা দিয়ে কাশিয়ানীবাসীকে ভালো রাখার চেষ্টা করছি। মহান আল্লাহর কাছে দোয়া করছি; যাতে আমাদের সবাইকে করোনার বিপদ থেকে রক্ষা করেন। সবকিছুর পর কাশিয়ানীর একজন হয়ে আপনাদের কাছে বিশেষ অনুরোধ; ঘরে থাকুন, প্রিয়জনকে সময় দিন। তাদের নিয়ে সবাই নিজ নিজ বাড়িতে নিরাপদে থাকুন।’ ইউএনও সাব্বির আহমেদের ফেসবুক পোস্টটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ভাইরাল হয়।

মন্তব্য