রামেক হাসপাতালের চিকিৎসকসহ ৪০ জন কোয়ারেন্টাইনে

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংস্পর্শে আসায় রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট ৪০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

এদের মধ্যে ছয়জন চিকিৎসক রয়েছেন। তাদের পর্যটন মোটলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। বাকিরা প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিনে থাকবেন।

মঙ্গলবার (২১ এপ্রিল) বিকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন করোনা নির্ণয় ও চিকিৎসক টিমের প্রধান ডা. আজিজুল হক আজাদ।

তিনি বলেন, আগামী দুই দিনের মধ্যে সবার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করার নির্দেশনা দিয়েছে কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও লকডাউন করা হয়েছে রামেক হাসপাতালের ৪২ নম্বর ওয়ার্ড। মঙ্গলবার বিকালে তাদের চিহ্নিত করে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোর পর ওয়ার্ড লকডাউন করে দেয়া হয়।

রামেক হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রামেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ৮০ বছর বয়সি এক রোগীর শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া গেছে। ওই রোগী গত ১৭ এপ্রিল রামেক হাসপাতালে ভর্তি হন। তখন তিনি জ্বর ও প্রসাবের সমস্যার কথা বলে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

এরপর তার এক্সরে করে করোনার লক্ষণ পাওয়া যায়। পরবর্তীতে তাকে সংক্রমক ব্যাধি হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়। সোমবার তার নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার পর করোনা পজিটিভ পাওয়া যায়।

এ বিষয়ে ডা. আজিজুল হক আজাদ জানান, ওই রোগীর করোনা পজিটিভ হবার কারণে ৪২ নম্বর ওয়ার্ড লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়া চিকিৎসা সংশ্লিষ্ট ৪০ জনকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। তাছাড়া রামেক হাসপাতালে করোনাভাইরাসের রাজশাহীর সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ে প্রতিদিনের ব্রিফিংও বন্ধ করা হয়েছে।

তবে সেটি অনলাইনে করার চিন্তাভাবনা চলছে বলেও জানান এ চিকিৎসক।

মন্তব্য