চীনে ২৪ ঘণ্টায় করোনা আক্রান্ত মাত্র ১

প্রজন্ম ডেস্ক

গত বছরের ডিসেম্বরে যেখানে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উৎপত্তি হয়েছিল সেই চীনে গত ২৪ ঘণ্টায় মাত্র একজনের শরীরে কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি ধরা পড়েছে। এছাড়া নতুন করে প্রাণহানি না ঘটায় দেশটিতে মৃতের সংখ্যা আগের ৪ হাজার ৬৩৩ জনেই রয়েছে। শনিবার চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশনের (এনএইচসি) বরাত দিয়ে ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য জানিয়েছে।

এতে বলা হয়েছে, শুক্রবার পর্যন্ত চীনের মূল ভূখণ্ডে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮২ হাজার ৮৭৫। তবে তাদের মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৭৭ হাজার ৬৮৫ জন। এছাড়া শুক্রবার একজন বিদেশ ফেরত ব্যক্তির করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তবে স্থানীয়ভাবে নতুন করে কোনো সংক্রমণ নেই।

স্থানীয়ভাবে সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হলেও চীনের মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে বিদেশ ফেরতরা। দেশটিতে এখন পর্যন্ত অন্তত ১ হাজার ৬৭১ জন বিদেশ ফেরত ব্যক্তির শরীরে করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তাদের মধ্যে সাতজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

করোনাভাইরাসের প্রাণকেন্দ্র হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহানে গত ২৮ দিনের মতো নতুন করে কোনো কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়নি। স্থানীয় স্বাস্থ্য কমিশন বলছে, উহানে সর্বশেষ করোনা সংক্রমিত ব্যক্তি শনাক্ত হন গত ৪ এপ্রিল। এরপর থেকে এখন পর্যন্ত নতুন করে কোনো রোগী পাওয়া যায়নি।

করোনাভাইরাসের বিস্তার ও প্রতিরোধে হুবেই সর্বোচ্চ জরুরি জারি অবস্থা জারি করা হয়েছিল। তবে এই জরুরি অবস্থার অবনমন ঘটিয়ে শনিবার তা দ্বিতীয় স্তরে নামিয়ে আনা হয়েছে। হুবেইয়ের ভাইস-গভর্নর ইয়ান ইয়ুনান বলেছেন, জরুরি অবস্থার অবনমন হুবেইয়ের করোনাভাইরাস প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণে বড় ধরনের অর্জন।

মন্তব্য