লকডাউন শিথিলের সঙ্গে মসজিদও খুলে দিচ্ছে ইরান

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনাভাইরাস মহামারির কারণে প্রায় দুই মাস বন্ধ থাকার পর সোমবার থেকে বেশ কিছু অঞ্চলের মসজিদ ফের খুলে দিচ্ছে ইরান। এছাড়া, লকডাউন আরও শিথিল করে শিগগিরই স্কুলও খুলে দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ইরানি প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি।

রোববার ইরানের করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে গঠিত টাস্কফোর্সের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে এ নির্দেশনা দেন দেশটির প্রেসিডেন্ট।

রুহানি জানান, ইরানে করোনা সংক্রমণের কম ঝুঁকিতে থাকা ১৩২টি কাউন্টিতে আগামীকাল থেকেই মসজিদ খুলে দেয়া হবে। তবে, বর্তমান প্রেক্ষিতে জামায়াতে নামাজ আদায়ের চেয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাই বেশি জরুরি বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

ইরানি প্রেসিডেন্ট জানান, ঝুঁকি কম হওয়ায় আগামী ১৬ মে থেকে স্কুলগুলো খুলে দেয়ার চিন্তাভাবনা করছে টাস্কফোর্স। একমাস ক্লাস চলার পর আবার গ্রীষ্মের ছুটি শুরু হবে।

গত ফেব্রুয়ারির মাঝামাঝি ইরানে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হন। এরই মধ্যেই সেখানে ৯৬ হাজারের বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, মারা গেছেন ৬ হাজার ১৫০ জন।

হাসান রুহানি জানিয়েছেন, গত কয়েক সপ্তাহে ইরানে হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তির হার অনেক কমেছে।

১০ মার্চের পর থেকে দেশটিতে সবচেয়ে কম রোগী শনাক্ত হয়েছে শনিবার (২ মে)।

তবে পশ্চিমাদের দাবি, ইরান করোনায় আক্রান্তের প্রকৃত সংখ্যা গোপন করছে। সেখানে সরকারি হিসাবের চেয়েও অনেক বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন বলে বিশ্বাস তাদের।

করোনার প্রকোপ ঠেকাতে গত মার্চে লকডাউন শুরু হয় ইরানে। বন্ধ ঘোষণা করা হয় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, সিনেমা হল. স্টেডিয়ামসহ অন্যান্য সমাবেশস্থল। তবে অর্থনৈতিক ক্ষতি কমাতে গত ১১ এপ্রিল থেকে কিছু ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ফের খোলার অনুমতি দিয়েছে প্রশাসন। যদিও জিম, সেলুনের মতো অতি ঝুঁকিপূর্ণ ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান এখনও বন্ধই রয়েছে।

প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেছেন, ‘আমরা ধীরেসুস্থে ধারাবাহিকভাবে সব কিছু আবার চালু করবো।’ তবে করোনার প্রকোপ গ্রীষ্মকালেও থাকতে পারে জানিয়ে এর জন্য সম্ভাব্য খারাপ দৃশ্যের জন্যে জনগণকে প্রস্তুত থাকার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

মন্তব্য