করোনায় আফ্রিকায় প্রাণ হারাতে পারে প্রায় ২ লাখ মানুষ

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনায় আক্রান্ত হয়ে আফ্রিকায় প্রায় ২ লাখ মানুষ প্রাণ হারাতে পারে। বৃহস্পতিবার বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এক সতর্কবার্তায় বলা হয়েছে, করোনাভাইরাসের বিস্তার নিয়ন্ত্রণে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে তা যদি ব্যর্থ হয় তবে মহামারীর প্রথম বছরেই আফ্রিকায় ১ লাখ ৯০ হাজার মানুষের মৃত্যু হতে পারে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আফ্রিকা অঞ্চলের পরিচালক ড. মাতশিদিসো মোয়েতি বলেন, আফ্রিকায় করোনার সংক্রমণের হার এখন পর্যন্ত অন্যান্য অঞ্চলের চেয়ে কম। কিন্তু সেখানেও আস্তে আস্তে সংক্রমণ বেড়ে হটস্পটে পরিণত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।

এক বিবৃতিতে তিনি বলেন, এই অঞ্চলে বিভিন্ন দেশের সরকার যদি প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ না নেয় তবে আগামী কয়েক বছরে কোভিড-১৯ আমাদের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হয়ে যাবে।

তিনি আরও বলেন, এই ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে আমাদের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করাতে হবে, আইসোলেশনে থাকতে হবে এবং চিকিৎসা নিতে হবে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা আশঙ্কা প্রকাশ করে জানিয়েছে, আফ্রিকায় ২ কোটি ৯০ লাখ থেকে ৪ কোটি ৪০ লাখ মানুষ প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে আক্রান্ত হতে পারে। এর মধ্যে ৫৫ লাখ মানুষের হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে।

গত মার্চে এক জরিপ থেকে উঠে এসেছে যে, আফ্রিকার ৪৭টি দেশে প্রতি ১০ লাখ মানুষের জন্য মাত্র ৯টি ইন্টেন্সিভ কেয়ার ইউনিটের ব্যবস্থা আছে। যা একেবারেই অপর্যাপ্ত।

গত ৩১ ডিসেম্বর চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়ে। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ২১২টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এই ভাইরাস।

তবে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত ও মৃত্যুতে শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটির ৫০টি অঙ্গরাজ্যই এই ভাইরাসের প্রকোপ ছড়িয়ে পড়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বিপর্যস্ত নিউইয়র্ক অঙ্গরাজ্য।

মন্তব্য