ইভানকা ট্রাম্পের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত

প্রজন্ম ডেস্ক

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প কন্যা ইভানকা ট্রাম্পের ব্যক্তিগত সহকারী। এ নিয়ে হোয়াইট হাউসের অন্তত তিন কর্মীর শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া গেল।

শনিবার মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন বলছে, যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কন্যা ইভানকা ট্রাম্পের ব্যক্তিগত সহকারীর করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ এসেছে। তবে গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ওই কর্মকর্তা প্রেসিডেন্ট কন্যার কাছাকাছি যাননি।

হোয়াইট হাউসের একটি সূত্রের বরাত দিয়ে সিএনএন বলছে, ইভানকা ট্রাম্প প্রায় দুই মাস ধরে টেলিযোগাযোগের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছেন এবং পূর্ব সতর্কতা হিসেবে তারও করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। তবে ওই কর্মকর্তার শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল না।

মার্কিন এই সংবাদমাধ্যম বলছে, ইভানকা এবং তার স্বামী জ্যারেড কুশনারের করোনা পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে শুক্রবার। দেশটির ভাইস প্রেসিডেন্ট মাইক পেন্সের তথ্য কর্মকর্তা ক্যাটি মিলার করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার একদিন পর ট্রাম্প কন্যার ব্যক্তিগত সহকারীর এই খবর এল।

হোয়াইট হাউসে এক বৈঠকে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, তিনি (মিলার) একজন দুর্দান্ত তরুণী। তিনি দীর্ঘদিন ধরেই প্রতিনিয়ত করোনার পরীক্ষা করছিলেন। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে আজ তার করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে।

মার্কিন এই প্রেসিডেন্ট বলেন, মিলারের সংস্পর্শে তিনি (ট্রাম্প) আসেননি। তবে মাইক পেন্স কিছু সময় কাটিয়েছিলেন।

এর আগে, বৃহস্পতিবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাসভবনের এক কর্মী করোনায় আক্রান্ত হন। ওই গৃহকর্মীর করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর আসার পর ট্রাম্প বলেন, তিনি প্রত্যেকদিন করোনা পরীক্ষা করাবেন।

হোয়াউট হাউসের এক জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেছেন, ভাইস প্রেসিডেন্টের তথ্য কর্মকর্তা মিলার করোনা সংক্রমিত হওয়ার পর হোয়াইট হাউসে তার সংস্পর্শে যারা এসেছিলেন তাদের শনাক্ত করা হয়েছে। হোয়াইট হাউসে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক এবং প্রত্যেকের নিয়মিত তাপমাত্রা পরিমাপ বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

মন্তব্য