‘প্রমাণ হলো সরকার জনগণ থেকে বিচ্ছিন্ন’

প্রজন্ম ডেস্ক

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দল (জেএসডি) বলেছে, ‘দোকান, শপিংমল ও বিভিন্ন ধরনের মার্কেট খোলার সরকারি সিদ্ধান্ত দোকান মালিক সমিতি প্রত্যাখান করায় প্রমাণ হয়েছে সরকার জনবিচ্ছিন্ন।’

রোববার এক বিবৃতিতে দলটির সভাপতি আ স ম আবদুর রব ও সাধারণ সম্পাদক এ ছানোয়ার হোসেন তালুকদার এ কথা বলেন।

বিবৃতিতে নেতারা বলেন, করোনা ইস্যুতে জাতীয় ঐকমত্য সৃষ্টির বিরাট সম্ভাবনা সরকার বাতিল করে গায়ে মানেনা আপনি মোড়লের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছে, যা করোনার ভয়াবহতাকে মোকাবিলায় সরকারের ব্যর্থতাই প্রকট করে তুলছে। এ পরিপ্রেক্ষিতে করণীয় হলো-

১.করোনায় গঠিত টেকনিক্যাল পরামর্শ কমিটির সুপারিশকৃত এক্সিট প্লানসহ করেনা উত্তোরণের রোডম্যাপ প্রকাশ করা।
২.করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় লকডাউন শাটডাউনের সিদ্ধান্তে জাতীয় ঐকমত্য প্রতিষ্ঠা করা।
৩.দোকান, শমিংমল, মার্কেট খোলার সিদ্ধান্ত স্থানীয় সরকার এবং দোকানদার সমিতি ও অন্যান্য সমাজশক্তির সমন্বয়ে গ্রহণ ও কার্যকর করা।

তারা বলেন, এই দুর্যোগে সরকারের একলা চলো নীতি করোনা পরিস্থিতিকে শুধু জটিলই করছে না, রাষ্ট্রকে চরম ঝুঁকিতে ফেলে দিয়েছে। কাযর্কর জাতীয় ঐক্য ছাড়া আর কোনো বিকল্প নেই। শুধু রাজনৈতিক দলের ঐক্য নয়; সকল শ্রমজীবী, কর্মজীবী ও পেশাজীবীর ঐক্যের মাধ্যমেই কেবল কাযর্কর জাতীয় ঐক্য প্রতিষ্ঠা সম্ভব। এ লক্ষ্যে করোনাযুদ্ধের ফ্রন্টলাইনের যোদ্ধা ডাক্তার, নার্স, সাংবাদিক, দোকান মালিক সমিতি, ব্যবসায়ী সমিতি, পুলিশ, সেনাবাহিনীসহ সকলকে অন্তর্ভুক্ত করে কেন্দ্র থেকে স্থানীয় সব পর্যায়ে জাতীয় ঐক্য গড়ে তোলার জন্য দ্রুত উদ্যোগ নিতে হবে।

মন্তব্য