মানিকগঞ্জে দোকান-পাট ও শপিংমল আবারও বন্ধ ঘোষণা

প্রজন্ম ডেস্ক

ঈদকে সামনে রেখে দোকানপাট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান খোলা রাখার সরকারি সিদ্ধান্তের দুইদিন পর মানিকগঞ্জে আবারও বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। ক্রেতা-বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি মেনে না চলায় এ সিদ্ধান্ত নেয় জেলা প্র্রশাসন।

মঙ্গলবার বিকেলে এক গণবিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে মানিকগঞ্জ জেলা প্রশাসক ও জেলা ম্যাজিস্ট্রেট এস.এম ফেরদৌস এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, যেহতু জনসাধারণের সুবিধার্থে পবিত্র রমজান ও ঈদ-উল ফিতরকে সামনে রেখে দোকান পাট, ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য বাজার যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করে এবং আরও কয়েকটি শর্ত যা সরকার কর্তৃক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছিল।কিন্তু দুই দিন বাজার ও শপিংমল সরেজমিন পরিদর্শনে প্রতীয়মান হয় যে ক্রেতা-বিক্রেতারা নূন্যতম ৯০ ভাগ মানুষ বর্ণিত শর্তের বিষয়ে সম্পুর্ণ অবহেলা প্রদর্শন করছেন।

এ অবস্থায় মানিকগঞ্জবাসীর স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে করোনা সংক্রমন প্রতিরোধে ১৩ মে থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পযর্ন্ত দোকান পাট/শপিংমল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হলো। তবে সাধারণ মুদি দোকান, কাঁচা সবজি বাজার ও ওষুধের দোকান এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে। এ আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানানো হয়।

প্রসঙ্গত, সরকারি সিদ্ধান্তের পর গত ১০ মে থেকে মানিকগঞ্জের দোকান পাট ও শপিংমল খুলতে শুরু করে।কিন্তু প্রথম দিন থেকেই দোকানগুলোতে ছিল মানুষের কেনাকাটার ভিড়।যেখানে সামাজিক দূরত্ব বজায় কিম্বা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার কোনো বালাই ছিলো না।বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রচার এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও সোচ্চার ছিলেন সচেতন মহল। এরপরই জেলা প্রশাসন থেকে দোকান বন্ধের সিদ্ধান্ত এলো। জেলা প্রশাসনের এ সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন মহল।

মন্তব্য