চালু হচ্ছে গণপরিবহন, ভাড়ার বিষয়ে বৈঠক শুক্রবার

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সীমিত পরিসরে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে গণপরিবহন চলাচলের নির্দেশ দিয়েছে সরকার।

এদিকে, পরিবহন মালিকদের সঙ্গে আলোচলা করে ভাড়ার পুনর্বিন্যাস বা নতুন করে ভাড়া নির্ধারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্যাহ।

বৃহস্পতিবার (২৮ মে) গণপরিবহন চলাচলের বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারির পর এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা জানান।

খন্দকার এনায়েত উল্যাহ বলেন, দেশে করোনার সংক্রমণ রোধে সবার স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিৎ।  তাই স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবহন চলাচল করলে, বাসে কম যাত্রী নিতে হবে। তাই ভাড়ার বিষয়ে মালিকদের সঙ্গে বসে আলোচলার মাধ্যমে নতুন ভাড়া বা নতুনভাবে ভাড়া পুনর্বিন্যাস করে বাস চালাতে হবে।

তিনি বলেন, ভাড়াসহ সার্বিক বিষয় নিয়ে কাল বিকেল ৩ টায় বনানীতে বিআরটিএর প্রধান কার্যালয়ে সরকারের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে মালিকদের বৈঠক হবে।

বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক রাকেশ বলেন, তবে ভাড়ার হার কি রকম হবে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে কিভাবে টার্মিনাল থেকে যাত্রী ওঠানামা করা হবে সেসব বিষয়ে আলোচনা করতেই কাল বৈঠক করা হবে।  স্বাস্থ্যবিধি মেনে সীমিতসংখ্যক যাত্রী নিয়ে চলতে গেলে নতুন করে ভাড়া ধার্য করার একটা বিষয় থাকে।

ঢাকা-কক্সবাজার রুটের সেন্টমার্টিন পরিবহনের ম্যানেজার জিতু হোসেন বলেন, সরকারের দেওয়া স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরিবহনে কমসংখ্যক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে হবে। তাই যাত্রীদের খরচ বেড়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।  আমাদের বাস মালিকরা বৈঠক করে আগামীকাল এই সিদ্ধান্ত নেবেন। মালিক নেতারা চাচ্ছেন করোনা পরিস্থিতিতে সীমিত যাত্রী তুলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাসের সিট অনুযায়ীই ভাড়া।

মন্তব্য