তাদের নজর থাকতো ব্যাংকে

প্রজন্ম ডেস্ক

চট্টগ্রামে একটি সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারী চক্রের ছয় সদস্যকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারদের মধ্যে একজন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা তাঁতী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক বলে জানা গেছে। পুলিশ বলছে, নগরের বিভিন্ন ব্যাংক থেকে টাকা তুলে বের হওয়া গ্রাহকদের টার্গেট করে ছিনতাইয়ে জড়িত এই চক্রের সদস্যরা।

শুক্রবার রাতভর নগরের দামপাড়া, কর্ণফুলী ও ফটিকছড়ি উপজেলায় অভিযান চালিয়ে এ ছয় ছিনতাইকারীকে গ্রেফতার করা হয়।

যে ছয়জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে তারা হলেন- কুমিল্লার মুরাদনগর থানার হালিরচর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে মো. কামাল হোসেন, চট্টগ্রাম নগরের পাঁচলাইশ থানার শুলকবহর এলাকার মৃত ইউনুছের ছেলে মোক্তার হোসেন, সাতকানিয়া থানার দোলারপাড়া গ্রামের মৃত নুরুল কবিরের ছেলে মো. সাদ্দাম, ফটিকছড়ি থানার দক্ষিণ ধুরুং গ্রামের কোরবান আলীর ছেলে মো. শের আলী, সীতাকুণ্ড থানার উত্তর সলিমপুর গ্রামের মৃত মো. শামছুল হকের ছেলে মো. এরশাদ ও আনোয়ারা থানার হাইলধর গ্রামের জহিরুল আলমের ছেলে মাসুদুর রহমান মাসুদ।

পুলিশ জানায়, মাসুদুর রহমান মাসুদ চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ২০১৬ সালেও তার বিরুদ্ধে নগরের কোতোয়ালি থানায় দুটি ছিনতাইয়ের মামলা হয়। আসামিদের কাছ থেকে একটি অস্ত্র, দুই রাউন্ড কার্তুজ, ডাকাতি করা নগদ ৫০ হাজার টাকা ও দুটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জাগো নিউজকে জানান, গত ১৬ জুন দুপুরে ফারুক আহাম্মদ নামে এক ব্যক্তি এক্সিম ব্যাংকের সিডিএ এভিনিউ শাখা থেকে ৫ লাখ টাকা তুলে আগ্রাবাদ যাচ্ছিলেন। নগরীর জমিয়াতুল ফালাহ মসজিদের গেটে তার সিএনজির গতিরোধ করে টাকা ছিনতাই করে একদল দুর্বৃত্ত।

ওই মামলার তদন্তে নেমে প্রথমে কর্ণফুলী উপজেলা থেকে তাঁতী লীগ নেতা মাসুদকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেয়া তথ্যে নগরীর ওয়াসার মোড় থেকে কামাল, মোক্তার সাদ্দাম ও এরশাদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সেখান থেকে দুজন পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে শের আলী নামে তাদের একজনকে ফটিকছড়ি উপজেলায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয়েছে।

অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) শাহ মুহাম্মদ আবদুর রউফ জানান, আসামিরা মূলত ছদ্মবেশী ছিনতাইকারী। তারা বিভিন্ন এলাকায় ছদ্মবেশে ঘোরাঘুরি করে সুযোগ বুঝে ছিনতাই করে।

তিনি বলেন, তাদের দলে একাধিক সদস্য রয়েছে। এদের কেউ টার্গেট করা ব্যক্তিকে অনুসরণ করে তথ্য সংগ্রহ করে। অন্যরা টাকা ছিনিয়ে নেয়।

মন্তব্য