মহাকাশে বেড়াতে যাওয়ার টিকিট বিক্রি !

মহাকাশে বেড়াতে যাওয়ার টিকিট বিক্রি !

প্রজন্ম ডেস্ক

মহাকাশচারী নন। কিন্তু মহাকাশ ভ্রমণের ইচ্ছা রয়েছে ষোলো আনা? তা হলে এই ‘অফার’ শুধু আপনার জন্য। দরকার ‘সামান্য’ কিছু টাকা।
কী করতে হবে আপনাকে? প্রথমেই কয়েক কোটি টাকা জমিয়ে ফেলতে হবে। তা হলেই জেফ বেজোস বা ব্র্যানসনের উড়ানে পাড়ি দিতে পারেন মহাকাশে। খরচ? দুই লক্ষ থেকে তিন লক্ষ ডলারের মধ্যে। ভারতীয় টাকায় যা ১ কোটি ৩৬ লক্ষ থেকে দু’কোটির মধ্যে।

পৃথিবী থেকে ১০০ কিমি দূরে পাড়ি দেবে এই মহাকাশযান। এতে থাকবে ছ’টি অবজারভেশন উইন্ডো। যাত্রীরা কয়েক মিনিটের জন্য নিজেদের ভারহীন বলে মনে করবেন। জানলা দিয়ে পৃথিবীর ঢালও দেখতে পারবেন তাঁরা।

এখনও পর্যন্ত সরকারি ভাবে টিকিটের দাম কিংবা মহাকাশ ভ্রমণ সংক্রান্ত কোনও ঘোষণা করা হয়নি, তবে মনে করা হচ্ছে ধনকুবের জেফ বেজোসের সংস্থাটি আগামী বছরেই যাত্রী নিয়ে পাড়ি দেবে মহাকাশে। কেউ বলছেন, প্রবল জনপ্রিয় হবে স্পেস ট্যুরিজম অর্থাৎ মহাকাশ ভ্রমণ। আবার কেউ বলছেন, খরচের দিকটি মাথায় না রাখলে এই ব্যবসা লাভজনক হবে না।

শোনা যাচ্ছে, নিউ শেপার্ড নামে একটি যান যাত্রী নিয়ে মহাকাশে পাড়ি দেবে আগামী বছরেই। মোট ছ’জন যাত্রী সুযোগ পাবেন এই মহাকাশ ভ্রমণের, এমনটাই কথা রয়েছে। তবে পরবর্তীতে যাত্রীসংখ্যা বাড়তেও পারে।

রিচার্ড ব্র্যানসন ও ইলোন মাস্ক, এই দু’জনই চাইছেন উৎসাহীদের মহাকাশ ভ্রমণে নিয়ে যেতে। ব্র্যানসনের ভার্জিন গ্যালাকটিক সংস্থা ইতিমধ্যেই নাকি ৬৫০টি টিকিট বিক্রি করে ফেলেছে।

অন্য দিকে, ইলোন মাস্কের স্পেস-এক্স সংস্থা জানিয়েছে, মহাকাশ ভ্রমণের মাধ্যমে এই বেড়ানো শুরু হলেও পরবর্তীতে ভিনগ্রহেও যাতে মানুষ বসতি স্থাপন করতে পারে, সেটাই দেখবে তাঁর সংস্থা। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কর্মী জানান, দুই থেকে তিন লক্ষ ডলারের মধ্যেই ঘোরাফেরা করবে মহাকাশ উড়ানের টিকিটের দাম। এ বার শুধু সময়ের অপেক্ষা।

মন্তব্য