এবার এলো ফিল্টারিং স্বচ্ছ মাস্ক

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ও বিস্তার রোধে মাস্কের ব্যবহারের গুরুত্ব অনেক। নিজেকে ও অন্যকে নিরাপদ রাখতে মাস্ক পরা জরুরি বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। তাই বিশ্বব্যাপী চাহিদা বেড়েছে ফেস মাস্কের। হিড়িক পড়েছে মাস্ক কেনার। এর সঙ্গে পাল্লা দিয়ে শুরু হয়েছে নতুন ধরনের মাস্ক উদ্ভাবনের। এবার এই উদ্ভাবনী প্রচেষ্টায় যুক্ত হলো স্বচ্ছ ফেস মাস্ক। এই মাস্কটি বায়ু ফিল্টারিংয়ের দক্ষতার পাশাপাশি একটি স্ব-পরিশোধক বৈশিষ্ট্যযুক্ত। এর অভ্যন্তরে আলোর প্রবেশ ঘটে।

লিফ গ্রুপের নতুন স্বচ্ছ মাস্ক যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেটর-এর অনুমোদন পেয়েছে। স্বচ্ছ এই মাস্ক পরলে কাগজ বা কাপড়ের মাস্কের মত মুখমণ্ডল ঢেকে যাবে না। এফডিএ অনুমোদন দেওয়ায় এ মাস্ক করোনাভাইরাস প্রতিরোধেও ব্যবহার করা যাবে।

লিফের এই স্বচ্ছ মাস্কে আপনার নাক, মুখ এবং গাল চারপাশের লোকদের কাছে দৃশ্যমান রেখে চিবুকের চারদিকে অবস্থিত ফিল্টার রয়েছে। এটি অন্তর্নিহিতভাবে বন্ধুত্বপূর্ণ করে তোলে, অন্যদের আপনার পরিচয় দেখতে দেয় এবং আপনার সাথে কথা বলার সাথে আপনার ঠোঁট বা মুখের ভাবগুলো পড়তে দেয়।

সিলিকন জাতীয় এই মাস্কের একটি অ্যান্টিফোগিং বৈশিষ্ট্য রয়েছে। তাই আপনার প্রতিটি প্রশ্বাসের সাথে অভ্যন্তরে মেঘাচ্ছন্ন হয়ে উঠবে না এই মাস্ক। শ্বাস নেওয়ার সাথে সাথে বায়ু ফিল্টারগুলোর মধ্য দিয়ে চলে যায় এবং অন্য মাস্কের মতো আপনাকে ৯৯% বিশুদ্ধ বাতাস দেয়।

মাস্কটি ৪টি আকারের, প্রাপ্তবয়স্কদের পাশাপাশি শিশুদেরও জন্য এটি ফিট। এতে দীর্ঘস্থায়ী ফিল্টার রয়েছে, আবার একটি পুনরায় ব্যবহারযোগ্যও।

লিফ জানায়, এ মাস্কটি এন৯৯প্লাস মানসম্পন্ন। এই মানের কোনো স্বচ্ছ মাস্ক এই প্রথম এফডিএ’র অনুমোদন পেল। এ মাস্কটি ০.৩ মাইক্রন সাইজের উপাদান ৯৯.৯৯৯ শতাংশ পরিস্রাবণ করতে সক্ষম।

মন্তব্য