অনলাইন ক্লাসের জন্য শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ল্যাপটপ দেয়ার দাবি বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রীর

প্রজন্ম ডেস্ক

করোনার কারণে দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ রয়েছে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এমতাবস্থায় আগামী পহেলা জুলাই থেকে অনলাইন ক্লাস নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। এমতাবস্থায় বেশিরভাগ শিক্ষার্থীর অনলাইনে ক্লাস করার সামর্থ্য নেই উল্লেখ করে ঢাবির এ ঘোষণার প্রতিবাদ জানিয়েছে প্রগতিশীল ছাত্রসংগঠন বিপ্লবী ছাত্র মৈত্রী। সোমবার (২৯ জুন) সংগঠনটির ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সংগঠক জাবির আহমেদ জুবেল স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে অনলাইন ক্লাসের জন্য শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে ল্যাপটপ সরবরাহসহ ৭টি দাবি তুলে ধরেছে সংগঠনটি।

দাবিগুলো হলঃ

১। শিক্ষার্থীদের জন্য বিনামূল্যে ল্যাপটপ ও ইন্টারনেট ডেটা প্যাক সরবরাহ করতে হবে। এক্ষেত্রে, সরাসরি আর্থিক সহায়তা এবং মোবাইল অপারেটরের মাধ্যমে শিক্ষার্থী বিনামূল্যে ডেটা প্যাক নিশ্চিত করতে হবে।

২। যে সকল শিক্ষার্থীর মোবাইল নেটওয়ার্কের কোনোই সুযোগ-সুবিধা নেই, বিশেষত পার্বত্য এলাকায়, তাদের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বিশেষ ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

৩। ভিন্ন ভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনে ক্লাস না করিয়ে, নির্দিষ্ট একটি এপে, স্বতন্ত্র প্ল্যাটফর্মে ক্লাস করাতে হবে।

৪। ক্লাসে উপস্থিতির জন্য বা ক্লাসের কাজের জন্য কোনো প্রকার মার্কস রাখা যাবে না। ক্লাস হতে হবে একদম স্বঃপ্রণোদিত।

৫। দুর্বল নেটওয়ার্ক এবং করোনাপরিস্থিতির কারণে যারা ক্লাসে উপস্থিত থাকতে পারবে না তাঁরা যেন ক্লাসে ভিডিও যেকোনো সময় ডাউনলোড করে নিতে পারে সে ব্যবস্থা করতে হবে এবং অবশ্যই ভিডিও এর সাইজ ছোট রাখতে হবে।

৬। করোনায় আর্থিক সমস্যার মধ্যে থাকা শিক্ষার্থীদের জন্য “দুর্যোগ বৃত্তি”র ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৭। শিক্ষার্থীরা করোনার মধ্যে যেন ক্লাস করতে গিয়ে মানসিক সমস্যার মধ্যে না পরে সেজন্য ডিপার্টমেন্ট কেন্দ্রিক কাউন্সিলিংয়ের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

মন্তব্য