আওয়ামী লীগ সরকার মানেই উন্নয়ন : যশোরে পৃথক দুটি স্থানে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তারা

আওয়ামী লীগ সরকার মানেই উন্নয়ন : যশোরে পৃথক দুটি স্থানে শোক দিবসের অনুষ্ঠানে বক্তারা

প্রজন্ম রিপোর্ট

গতকাল যশোর সদরের নওয়াপাড়া ইউনিয়নের বিরামপুর ও রামনগর ইউনিয়নের সিরাজসিংগা গ্রামে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত পৃথক দুটি অনুষ্ঠানে বক্তরা বলেন, বঙ্গবন্ধু মানুষকে অর্থনৈতিক মুক্তির পথ দেখিয়েছেন। তিনি মৃত্যুবরণ করেন নাই। মানুষের অন্তরে বঙ্গবন্ধুর নাম চিরদিন থাকবে। মানুষের মৃত্যু হয় কিন্তু আদর্শের মৃত্যু হয় না।

জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে প্রতিষ্ঠিত করেছিল, দেশ থেকে তাদেরকে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা করেছিল। এমনকি এ হত্যার বিচার যাতে না হয়, সে জন্য একটি আইন পাস করা হয়েছিল।

বক্তারা আরো বলেন আওয়ামীলীগ সরকার মানেই উন্নয়ন। গত ৯ বছরে যশোরসহ সারাদেশে যে উন্নয়ন হয়েছে বিগত ৪৭ বছরেও তা হয়নি। গ্রামীন অবকাঠামোর ব্যপক উন্নয়নের ফলে শহর ও গ্রামের মধ্যে যোগাযোগ সহজ হয়েছে। ফলে কৃষকরা তাদের উৎপাদিত পন্য বাজারজাত করতে পারছে অল্প খরচে। উন্নয়নের এই ধারাবাহিকতা অব্যহত রাখতে পুনরায় আওয়ামীলীগ সরকারকে ক্ষমতায় আনতে হবে।

নওয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আয়োজিত শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলন, বিশেষ অতিথি সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ, জেলা আওয়ামীলীগের সুখেন মজুমদার, ফারুক আহমেদ কচি, সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মেহেদী হাসান মিন্টু, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড. সেতারা খাতুন, নওয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নাছরিন সুলতানা খুশি, জেলা যুবলীগের সিনিয়র সভাপতি সৈয়দ মনির হোসেন টগর, সাংগঠনিক সম্পাদক মঈনুদ্দিন মিঠু, শহর যুবলীগ সদস্য শুভ চক্রবর্তী মিন্টু, যুবলীগ নেতা জসিম, ছাত্রলীগ নেতা হাসান, কাউন্সিল মেম্বর লিপা।

এবং সিরাজ সিংগা গ্রামের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি মোহিত কুমার নাথ।
এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ওয়াজেদ আলীসহ নেতৃবৃন্দ।

মন্তব্য