সখীপুরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু

প্রজন্ম ডেস্ক

টাঙ্গাইলের সখীপুরে ফুটবল খেলা দেখতে এসে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দ্বিতীয় শ্রেণির এক শিক্ষার্থীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (১৫ জুলাই) সন্ধ্যায় উপজেলায় বেতুয়া বিশিষ্ট শিল্পপতি সালাহউদ্দিন আলমগীর রাসেলের প্রতিষ্ঠিত সালমা ফাতেমা কওমী মাদ্রাসার নির্মাণাধীন চারতলা ভবনের ছাদে এ ঘটনা ঘটে। ফুটবল খেলার দর্শকরা তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই শিক্ষার্থীকে মৃত ঘোষণা করে।
নিহত ওই শিক্ষার্থীর নাম আবদুল্লাহ ওরফে আবদুর রহমান (৮)। সে উপজেলার কালিয়ান টানপাড়া গ্রামের সৌদিআরব প্রবাসী সোবহান খানের ছেলে। সে সখীপুর রফিকরাজু স্কুলের ৩য় শাখার দ্বিতীয় শ্রেণির শিক্ষার্থী। শরীরে বিদ্যুৎস্পৃষ্টের সে ধরনের কোনো নমুনা না থাকায় ময়নাতদন্তের জন্য লাশ টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, উপজেলার বেতুয়া কওমী মাদ্রাসা মাঠে স্থানীয়রা আজ বুধবার বিকেলে একটি ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করে। প্রায় দুই কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে ওই শিক্ষার্থী খেলা দেখতে ওই মাঠে যায়। খেলা দেখার সুবিধার্থে ওই শিক্ষার্থী নির্মানাধীন চারতলা ভবনের ছাদে উঠেন। খেলা শেষে ছাদ থেকে নামতে সময় বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হয়ে ওই শিক্ষার্থী মারা যায়। পরে ফুটবল মাঠের দর্শকরা উদ্ধার করে তাকে সখীপুর হাসপাতালে নিয়ে আসে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসা কর্মকর্তা সুলতানা রাজিয়া বলেন, স্বজনেরা মৃত অবস্থাতেই ওই ছেলেটাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। শরীরের কোথাও বিদ্যুৎস্পৃষ্টের কোনো চিহ্ন না থাকায় লাশ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। তবে পায়ের পাতার নিচে সামান্য ক্ষত রয়েছে।

সখীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, চিকিৎসকের মনে সন্দেহ হওয়ায় লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হচ্ছে। এ ছাড়াও বিষয়টি অধিকতর তদন্তের জন্য পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবিরকে ঘটনাস্থল পরিদর্শনের জন্য পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য