বাবুনগরীর হুঁশিয়ারি, কোরবানি নিয়ে ষড়যন্ত্র বরদাশত করা হবে না

প্রজন্ম ডেস্ক

হেফাজতে ইসলামের মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, ‘কোরবানি ইসলাম ধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ ইবাদত। সামর্থ্যবান নর-নারীর ওপর কোরবানি করা ওয়াজিব। কোরবানি বছরে কেবল একবার আদায় করতে হয়। এর মাধ্যমে মহান আল্লাহর নৈকট্য ও ভালোবাসা অর্জন হয়। তাই দেশ-বিদেশে কেউ কোরবানি নিয়ে কোনও প্রকার ষড়যন্ত্র করলে তা বরদাশত করা হবে না।’ বুধবার (২২ জুলাই) রাতে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে তিনি এসব বলেন।

বাবুনগরী আরও বলেন, ‘সংখ্যাগরিষ্ঠ মুসলিম দেশ বাংলাদেশের ঢাকা মোহাম্মাদপুর জাপান গার্ডেন সিটি, চট্টগ্রামের হাটহাজারী ফতেয়াবাদ, সিলেটের এমসি কলেজ এলাকাসহ বিভিন্ন স্থানে কোরবানির ব্যাপারে বিভিন্ন নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে এলাকা কর্তৃপক্ষ। উপরোক্ত এলাকাগুলোর কর্তৃপক্ষের এরকম দুঃসাহসি সিদ্ধান্তকে ঘৃণাভরে আমরা প্রত্যাখ্যান করছি। স্বাস্থ্যবিধি মেনে অফিস আদালত, ব্যবসা বাণিজ্য ও গার্মেন্টস-কোম্পানি চলতে পারলে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানিও অবশ্যই করা যাবে।’

সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানি আদায়ের কথা বলার পরেও ওই এলাকাগুলোর ‘এরকম হঠকারী সিদ্ধান্ত চরম ধৃষ্টতা’ বলে মন্তব্য করেন হেফাজত মহাসচিব। তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের কারণে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে কর্তৃপক্ষ জানালেও স্বাস্থ্যবিধি মেনে কোরবানি করলে কোনও সমস্যা হবে না বলে জানিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। সুতরাং করোনাভাইরাসের অজুহাত দিয়ে এমন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা মানে ধর্মীয় বিধান পালনে অবৈধ হস্তক্ষেপ করা। যা কোনও অবস্থায় মুসলমানরা বরদাশত করতে পারে না।’

মন্তব্য