মন ছুঁয়েছে ‘দিল বেচারা’

প্রজন্ম ডেস্ক

শুক্রবার (২৪ জুলাই) মুক্তি পেয়েছে প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত অভিনীত সিনেমা ‘দিল বেচারা’। এটি এই অভিনেতার সর্বশেষ সিনেমা। তাই এটির জন্য অধির আগ্রহে অপেক্ষা করছিলেন সবাই।

সিনেমাটি তৈরি হয়েছে জন গ্রিনের সর্বাধিক বিক্রিত বই ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টার্স’ অবলম্বনে। যদিও এর আগে ২০১৪ সালে ‘দ্য ফল্ট ইন আওয়ার স্টার্স’ নামে একটি হলিউড সিনেমা তৈরি হয়। তবে দর্শকের মন ছুঁয়েছে ‘দিল বেচারা’।

সিনেমায় ম্যানি ও কিজির প্রেমের গল্প তুলে ধরা হয়েছে। ক্যানসারে আক্রান্ত কিজির ইচ্ছা পূরণে সাহায্য করেন ম্যানি। সুশান্ত ছাড়াও সিনেমাটির বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন— সানজানা সাংঘাই, সাইফ আলী খান, স্বস্তিকা মুখার্জি, জাভেদ জাফরি প্রমুখ। ডিজনি-হটস্টারে মুক্তির পর থেকেই সুশান্ত বন্দনায় ভক্তরা। বিভিন্নভাবে প্রিয় তারকার প্রতি ভালোবাসা প্রকাশ করতে থাকেন তারা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে রীতিমতো ট্রেন্ডিং তিনি।

মাইক্রোব্লগিং সাইট টুইটারে অভিনেত্রী ভূমি পেডনেকার লিখেছেন, ‘আবেগে ভরপুর, আবেগাপ্লুত এবং কান্না থামাতে পারছি না। অসাধারণ অভিনয়। সুশান্ত খুব সুন্দরভাবে এটি ফুটিয়ে তুলেছেন। একই সাথে সুন্দর ও বেদনাদায়ক—  এরকম অনুভূতি আগে হয়নি। অসাধারণ বিদায়। ভক্ত ও প্রিয়জনদের জন্য অসাধারণ উপহার। মুকেশ ছাবরা খুব সুন্দরভাবে সিনেমাটি তৈরি করেছেন। সানজানা সাংঘাইকে সিনেমা জগতে স্বাগতম। কিজি ও ম্যানির জগত অনেক সুন্দর। খুবই চমৎকার একটি সিনেমা। ভালোবাসায় ভরপুর।’

নির্মাতা হ্যানসাল মেহতা টুইট করেছেন, ‘এটি খুবই চমৎকার সিনেমা, বিষয়বস্তু বাছাই খুব ভালো এবং পরিচালক হিসেবে অভিষেক সিনেমায় মুকেশ ছাবরা অসাধারণ ছিলেন। সিনেমার লোকেশন, চিত্রগ্রহণ ও কলাকুশলী নির্বাচন খুবই সুন্দর হয়েছে। সুশান্তকে ও তার কাজ স্মরণীয় করে রাখতে দিল বেচারা দেখলাম। এছাড়া মুকেশ ছাবরার প্রথম সিনেমা। সিনেমাটি আমাকে কাঁদিয়েছে। একটি প্রাণের অকাল প্রয়াণ, পর্দায় দুটি প্রাণবন্ত জীবনের ট্র্যাজিডি— হাস্যরসাত্মক দৃশ্যগুলোতেও আমাকে অশ্রুসিক্ত করেছে। এছাড়া এ আর রহমান ও অমিতাভ ভট্টাচার্যের টাইটেল গানও মনোমুগ্ধকর ছিল।’

‘দিল বেচারা’ সিনেমা দেখে কান্নায় ভেঙে পড়েন গায়িকা নেহা কাক্কর। সুশান্তকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার দেওয়ার দাবি করেন তিনি। ফটো শেয়ারিং সাইট ইনস্টাগ্রামে নেহা লিখেছেন, ‘দিল বেচারা সর্বকালের সেরা একটি সিনেমা। এই বছর সুশান্তকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারে সেরা অভিনেতা ও মুকেশ ছাবরাকে সেরা পরিচালকের পুরস্কার দেওয়া উচিত। সানজানা সাংঘাইকেও। সুশান্তের জন্য আমরা অন্তত এতটুকু করতে পারি।’

এছাড়া বক্স অফিস বিশ্লেষক ও সিনেমা সমালোচকরাও সুশান্ত ও সিনেমাটির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন। পাশাপাশি ইন্টারনেট মুভি ডাটাবেজে (আইএমডিবি) সিনেমাটির বর্তমানে রেটিং ৯-এর উপরে।

মন্তব্য