স্বস্তিতে ভারত, অধিকাংশ এলাকা থেকে চীনের সেনা প্রত্যাহার

প্রজন্ম ডেস্ক

ভারত ও চীন সীমান্ত এলাকা থেকে প্রায় সব সৈন্যই প্রত্যাহার করে নিয়েছে চীন। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন গতকাল মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে বলেন, ‘দুই দেশের সৈন্য প্রায় পুরোটাই নিজের নিজের জায়গায় সরে গিয়েছে এবং উত্তেজনা প্রশমনের উদ্দেশ্যে খুব শিগগিরই ভারত ও চীনের সামরিক কর্তাদের মধ্যে পঞ্চম দফা আলোচনা হবে। কবে বৈঠক বসছে সেটা এখনও ঠিক হয়নি।’

গত ১৫ জুন হিমালয়ের পার্বত্য অঞ্চল লাদাখের দুর্গম সীমান্তে সংঘাতে জড়ায় চীন ও ভারতের সেনাবাহিনী। এতে অন্তত ২০ সেনা নিহতের কথা স্বীকার করে ভারত। তবে হতাহতের সংখ্যা প্রকাশ থেকে বিরত থাকে বেইজিং। ওই ঘটনার পর থেকেই বিরোধপূর্ণ সীমান্ত এলাকাগুলোতে অতিরিক্ত সেনা সমাবেশ ঘটায় উভয় দেশ। পার্বত্য অঞ্চলটির ওপর দিয়ে ঘন ঘন টহল দিতে শুরু করে যুদ্ধবিমান। উত্তেজনা বাড়তে থাকায় তা নিরসনে সামরিক ও কূটনৈতিক পর্যায়ে আলোচনাও শুরু করে পারমাণবিক শক্তিধর দেশ দুটি।

ইতোমধ্যে সামরিক কমান্ডার পর্যায়ে চার দফায় দুই দেশের আলোচনা হয়েছে। মঙ্গলবার বেইজিংয়ে চীনা মুখপাত্র ওয়াং ওয়েনবিন জানান, পঞ্চম দফায় আলোচনায় বসতে প্রস্তুতি নিচ্ছেন চীন ও ভারতীয় সেনা কমান্ডাররা। তবে কবে নাগাদ এই আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তারিখ জানাতে পারেননি তিনি। সীমান্তের উত্তেজনাকর পরিস্থিতি ঠান্ডা হয়ে আসছে জানিয়ে চীনা মুখপাত্র বলেন, ইতোমধ্যে বেশিরভাগ এলাকা থেকে দুই দেশের সম্মুখ সারির সেনারা সরে যাওয়া সম্পন্ন করেছে।

মন্তব্য