লামায় ৩৫০ পিস ইয়াবাসহ নারী আটক

প্রজন্ম ডেস্ক

লামা উপজেলার আজিজনগরে গভীররাতে অভিযান চালিয়ে ৩৫০ পিস ইয়াবা সহ এক নারী মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানিয়েছেন, বুধবার (৫ আগস্ট) রাত ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত এই অভিযান চালায় লামা থানা পুলিশ। অভিযানে আটক পারভীন আক্তার (৩০) আজিজনগর ইউনিয়নের হিমছড়ি এলাকার মোস্তাফিজুর রহমানের স্ত্রী।

জানা যায়, ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয় ও মজুদ আছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আজিজনগরের হিমছড়ি এলাকায় গভীর রাতে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে পুলিশ। লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ এর নির্দেশে থানা পুলিশের এসআই মোঃ ফরিদ, এএসআই রাম প্রসাদ দাশ, লিংকন ও নিপুণ স্থানীয় গ্রাম পুলিশকে সাথে নিয়ে অভিযান চালায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ী পারভীন আক্তার ও তার স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান দা ও লাঠি নিয়ে হামলা চালায়। রাত ৩টা থেকে সাড়ে ৪টা পর্যন্ত দেড় ঘন্টা চেষ্টা চালিয়ে পারভীন আক্তার কে ৩৫০ পিস ইয়াবা সহ আটক করা হয় এবং তার স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান জঙ্গলে পালিয়ে যায়। মোস্তাফিজুর রহমান হিমছড়ি এলাকার নুর ইসলামের ছেলে।

হিমছড়ি এলাকার বাসিন্দা জুলেখা বেগম (৪৫) বলেন, রাতে পুলিশ অভিযান করলে পারভীন আক্তার ও তার স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান দা, বটি ও লাঠি নিয়ে পুলিশের উপর চড়াও হয়। এসময় তাদের লাঠির আঘাতে দুইজন পুলিশ আহত হয়।

অভিযানে অংশ নেয়া এএসআই রাম প্রসাদ দাশ বলেন, পারভীন আক্তারকে আটকের পর তার বলেন, পারভীন আক্তারকে আটকের পর তার রান্না ঘরে তল্লাশি চালিয়ে আলমারি (ভাতের রেক) থেকে পলিথিন ও কাগজ দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় ৩৫০ পিস ইয়াবা পাওয়া যায়। পারভীন আক্তার ও তার স্বামী মোস্তাফিজুর রহমান দীর্ঘদিন যাবৎ ইয়াবা ক্রয়-বিক্রয়ের সাথে জড়িত বলে জানা যায়। পুলিশের উপর হামলা করা ওই নারীর কাছ থেকে একটি দা জব্দ করা হয়েছে।

ইয়াবা সহ নারী মাদক ব্যবসায়ী আটকের সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, আটক নারীকে লামা থানায় আনা হচ্ছে। তার পলাতক স্বামীকে গ্রেফতারে পুলিশ কাজ করছে। এই বিষয়ে মাদক আইনে মামলা গ্রহণ করা হবে।

মন্তব্য