সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চাইলে কঠোরভাবে দমন করা হবে

প্রজন্ম ডেস্ক

ভবিষ্যতেও কেউ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চাইলে তা কঠোরভাবে দমন করা হবে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রাজধানীর মিন্টু রোডে মন্ত্রীর সরকারি বাসভবনে বৌদ্ধ কৃষ্টিপ্রচার সংঘ সভাপতি বুদ্ধপ্রিয় মহাথেরোর নেতৃত্বে একটি বৌদ্ধ প্রতিনিধি দলের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাতে তিনি এসব বলেন। তথ্য মন্ত্রণালয়ের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক পাকিস্তান থেকে বেরিয়ে এসে সমস্ত সম্প্রদায়ের সাম্য ও অসাম্প্রদায়িক রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার জন্য বঙ্গবন্ধুর নেতৃত্বে স্বাধীনতা যুদ্ধের মাধ্যমে বাংলাদেশ রচিত হয়েছে। এই দেশে সময়ে সময়ে সাম্প্রদায়িক অপশক্তি আন্ত:ধর্ম সম্প্রীতি বিনষ্টের অপচেষ্টা চালিয়েছে। বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে সেই অপচেষ্টা কঠোর হস্তে দমন করা হয়েছে। ভবিষ্যতেও কেউ যদি সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করতে চায়, সেটিও কঠোরভাবে দমন করা হবে’।

‘সবার মিলিত রক্তস্রোতের বিনিময়ে যেভাবে বাংলাদেশ রচিত হয়েছে, সবাই সম্মিলিতভাবে হাতে হাত রেখে কাজ করে আমরা দেশকে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের ঠিকানায় পৌঁছে দিতে চাই’।

প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী ও আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, বাংলাদেশ বুদ্ধিস্ট ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক ভিক্ষ সুনন্দ প্রিয়, বাংলাদেশ বৌদ্ধ সমিতির সাধারণ সম্পাদক স্বপন বড়ুয়া চৌধুরী, রাঙ্গুনিয়া ফলহারিয়ার ভদন্ত শরনংকর থেরো, বাংলাদেশ বুদ্ধ ঐক্য পরিষদের সভাপতি রূপম বড়ুয়া, বৌদ্ধ কৃষ্টি প্রচার সংঘের আইন সচিব প্রদীপ বড়ুয়া, ব্যারিস্টার জ্যোতির্ময় বড়ুয়া প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

রাজধানীর সিদ্ধেশ্বরী পূজামন্ডপে জন্মাষ্টমী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দেন হাছান মাহমুদ। আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে সাংস্কৃতিক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার ব্যবস্থাপনা সম্পাদক সন্তোষ শর্মা অনুষ্ঠানে অংশ নেন।

সিদ্ধেশ্বরী সার্বজনীন পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি জয়ন্ত কুমার দেবের সভাপতিত্বে বক্তারা সনাতন ধর্মাবলম্বীদের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানান।

মন্তব্য