স্বামীকে তালাক দিয়ে ফেসবুক প্রেমিকের বাড়িতে নববধূর অনশন

প্রজন্ম ডেস্ক

ময়মনসিংহের তারাকান্দায় বিয়ের দাবিতে প্রেমিক সাদ্দামের বাড়িতে ৩ দিন ধরে অনশন করছে এক প্রেমিকা। অনশনরত ওই তরুণী বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের ছাত্রী। সাদ্দাম উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নে ভেরুয়া গ্রামের আবু চাঁন মিয়ার ছেলে। উপজেলার কামারগাঁও ইউনিয়নে ভেরুয়া গ্রামের আবু চাঁন মিয়ার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। ওই তরুণী বিয়ের দাবিতে গত রবিবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুর থেকে অনশন শুরু করে। পরে মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকালে পুলিশ ওই তরুণীকে উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

প্রেমিক সাদ্দামের বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অনশনরত তরুণী বলেন, ২ বছর আগে সামাজিক যোগাযোগ (ফেসবুকে) মাধ্যমে আমাদের পরিচয় হয়। সেই পরিচয়ের সূত্র ধরেই আমাদের মাঝে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে।

এরপর হঠাৎ করেই আমাকে জোড় করে অনত্র বিয়ে দেয় আমার পরিবার। কিন্তু সাদ্দাম আমাকে সেখানে সংসার করতে দেয়নি। আমাকে বিয়ে করবে আশ্বাস দিয়ে ওই স্বামীকে তালাক দিতে বাধ্য করে। গত তিনমাস যাবৎ সে আমার সাথে মেলা মেশা করছে। বিয়ের আশ্বাসে বিভিন্ন সময় আমার সাথে শারীরিক সম্পর্কও করে। এখন বিয়ের কথা বললে। সে তার পরিবারের অজুহাত দেখিয়ে আমাকে এড়িয়ে চলে।

তরুণীর বাবা বলেন, আমার মেয়েকে অন্য জায়গায় বিয়ে দিয়েছিলাম। কিন্তু, সাদ্দাম আমার মেয়েকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে ওই স্বামীকে তালাক দিতে বাধ্য করে। এখন সে আমার মেয়েকে বিয়ে করবে না বলে জানায়। সে আমার মেয়ের জীবনটা নষ্ট করে দিয়েছে। আমি এর বিচার চাই।

তারাকান্দা থানার ওসি মো. আবুল খায়ের বলেন, খবর পেয়ে অনশনরত তরুণী উদ্ধার করা হয়েছে। তরুণীর মামা ও বাবা এসে তাকে নিয়ে গেছে। ওই তরুণীর বাড়ি ফুলপুর উপজেলায় হওয়ায় আগামীকাল ফুলপুর থানায় মামলা করবেন বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য