অপরাধ ডায়েরী(পর্ব-৪) বিকাশ বিড়ম্বনা

অপরাধ ডায়েরী

শরিয়তউল্লাহ শুভ

যশোর সদর উপজেলার চাঁদপাড়া দারুল উলুম খাদেমুল কুরআন মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা শিক্ষক রকিবউদ্দিন। এক ছাত্রীকে যৌনপীড়ন মামলায় বর্তমানে তিনি যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে আটক রয়েছেন।
হঠাৎ একদিন তার স্ত্রী রাবেয়া বেগম এর কাছে একটি অপরিচিত নম্বর থেকে কল আসে। কলটি রিসিভ করতেই ওপার থেকে ভেসে আসে একটি দুঃসংবাদ।

তাকে বলা হয়, “আপনার স্বামীর হার্টে ব্লক ধরা পড়েছে। হার্টের প্রায় ৯০ ভাগ নিষ্ক্রিয়। ২৫ মিনিটের মধ্যে হার্টে রিং না পরাতে পারলে তিনি মারা যেতে পারেন। তার শারিরিক অবস্থা অবনতি হওয়ায় তাকে যশোর কারাগার থেকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। সেখানে ডা. শহিদুল ইসলামের তত্ত্বাবধানে তার হার্টে রিং পরানো হবে।

এজন্য এখনই হাসপাতালে ১ লাখ টাকা জমা দেওয়া প্রয়োজন। আপাতত এই টাকা দিয়ে আপনার স্বামীর চিকিৎসা শুরু করা যাবে, বাকি টাকাটা পরে দিতে হবে। টাকাটা কিভাবে দিবে জানতে চান রাবেয়া বেগম। তাকে বলা হয় টাকাটা বিকাশের মাধ্যমে পাঠাতে। এর প্রায় মিনিট দশেক পরে অন্য একটি নম্বর থেকে তার কাছে আবারও কল আসে। তখন অপর প্রান্ত থেকে নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি বলেন, এখনই ১ লাখ টাকা পাঠিয়ে দেন। না হলে আপনার স্বামীকে বাঁচানো সম্ভব হবে না।

এই কথা শুনে দিগি¦দিক জ্ঞানশূন্য না হয়ে রাবেয়া বেগম কোতোয়ালি থানা পুলিশের কাছে গিয়ে পুরো ঘটনার বিবরণ দিয়ে পুলিশের সহায়তা চান। পরে পুলিশের পরামর্শে তিনি টাকাটা লেনদেন থেকে বিরত থাকেন। পরে কারাগারে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, তার স্বামী যশোর কেন্দ্রীয় কারাগারে সুস্থ্যভাবেই আছেন। তার হার্টে রিং পরানোর মত কোন ঘটনাই ঘটেনি।

তবে যদি সেদিন রাবেয়া বেগম জ্ঞানশূন্য হয়ে বিকাশে ১লাখ টাকা দিয়ে দিতেন তবে নিশ্চিত তিনি সেদিন তিনি বিকাশে প্রতারণার শিকার হতেন। চলতি বছরের ৩১ অক্টোবরের ঘটনা এইটা।
বিসিএমসি কলেজের শিক্ষার্থী রিয়াজুল ইসলাম। থাকেন মোল্লাপাড়ার একটি ছাত্রাবাসে। তার কলেজের বেতন ও মাসিক খরচ বাবদ তার বিকাশ নম্বরে ৬,০০০ টাকা পাঠান তার বাবা। টাকা পাওয়ার কিছুক্ষণ পর একটি অচেনা নম্বর থেকে ফোন আসে রিয়াজুলের কাছে। ফোনকারী ওই ব্যক্তি নিজেকে বিকাশের কাস্টমার কেয়ার থেকে ফোন করেছেন বলে জানান। পরে তিনি বলেন,

আপনার বিকাশ অ্যাকাউন্টটি আপডেট না করার কারনে বন্ধ করা হচ্ছে। অ্যাকাউন্টটি সচল রাখতে চাইলে মেসেজে আসা একটি কোড নম্বর তাকে বলতে হবে। মাসিক খরচের সমস্ত টাকা ওই বিকাশ অ্যাকাউন্ট এ থাকায় রিয়াজুল একটু উদ্বিগ্ন হয়ে পড়ে। তাই সাথে সাথেই তার মোবাইলে আসা কোড নম্বরটি জানায় অজ্ঞাত ওই ফোনকারীকে। রিয়াজুলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অ্যাকাউন্টটি সচল রাখা হলো বলে জানান ঐ ফোনকারী।

রিয়াজুল তখনও কিছু বুঝতে পারেনি। পরে যখন বিকাশের একটি দোকান থেকে ক্যাশআউট করতে যান তখন তিনি দেখেন তার অ্যকাউন্টে সিকি পয়সাও নেই। রিয়াজুল তখন বুজতে পারেন তিনি বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পড়েছিলেন। চলতি বছরের ১৫ই জুলাই রিয়াজুলের সাথে ঘটে যায় এমন একটি বিকাশ প্রতারণার ঘটনা।

এরকম শত শত রিয়াজুল প্রতিনিয়ত বিকাশ প্রতারকের খপ্পরে পড়ছেন। নিজের নির্বুদ্ধিতার কথা প্রকাশ করতে চায় না অনেকে। তাই এ নিয়ে হয়না তেমন কোন মামলা। এমনকি হয়না কোন পত্রিকার রিপোর্টও। কিন্তু বিকাশের মাধ্যমে যখন প্রতারনা করে বড় অংকের টাকা হাতিয়ে নেয় প্রতারক চক্র তখন দিনের আলোতে আসে কতিপয় এমন প্রতারনার খবর। আপনাদের সর্তকর্তার জন্য এবছর ঘটে যাওয়া এরকমই কিছু প্রতারনার ঘটনা তুলে ধরা হল:

১৬ জানুয়ারী ২০১৯, যশোর জেলা প্রশাসনের সহকারি কমিশনারের বিকাশের টাকা প্রতারণার মাধ্যমে আত্মসাত মামলায় একজনকে আটক করে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। ৮ ফেব্রুয়ারী ২০১৯, বিকাশের কল সেন্টার পরিচয় দিয়ে বসুন্দিয়ার কলেজ ছাত্রী শামসুন নাহারের কাছ থেকে ৫ হাজার টাকা আত্মসাৎ করে বিকাশ প্রতারক।

১৪ মার্চ ২০১৯, মনিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও পরিচয়দানকারী এক বিকাশ প্রতারকের কাছে প্রায় ২৭ হাজার টাকার প্রতারনার শিকার হন আবদুস সামাদ নামের এক মুক্তিযোদ্ধা। ২৯ মে ২০১৯, যশোরে সেলিম রেজা নামে এক যুবকের বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে ১৮ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় বিকাশ প্রতারক চক্র। ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, গৃহশিক্ষক ইসতিয়াক আহমেদ ৫ হাজার টাকা বিকাশ প্রতারনার শিকার হন।

দেশ উন্নত হচ্ছে। উন্নত হচ্ছে আমাদের জীবনযাত্রার মানও। সেই সাথে প্রতিযোগীতা করে প্রতারনার ধরনও পাল্টে ফেলছে প্রতারকচক্রগুলি। নিত্য নতুন প্রতারনার পদ্ধতি আবিষ্কার করছে প্রতারণাকারীরা। তবে কথায় বলে অপরাধীর পথ কখনো দীর্ঘ হয়না। প্রয়োজন শুধু সাধারণ মানুষদের সচেতনতার। কেবল সচেতনতা দিয়েই দেশের অর্ধেক অপরাধ কমানো সম্ভব।

তাই সবসময় প্রশাসনের ওপর ভরসা বা দোষারোপের মানসিকতা দূর করে নিজেকে পরিবর্তন করতে হবে। নিজে সচেতন হোন অপরকে সচেতন করুন। সাবধানে থাকুন সতর্ক থাকুন।

মন্তব্য