বিদ্যুৎ চালিত ‘জি-ক্লাস এসইউভি’ আনবে মার্সেইডিজ-বেঞ্জ

প্রজন্ম ডেস্ক

নিজেদের ‘জি ক্লাস এসইউভি’র বৈদ্যুতিক সংস্করণ আনবে মার্সেইডিজ-বেঞ্জ। রূপান্তরের মধ্য দিয়ে গাড়িটিকে ‘শূন্য কার্বন নিঃসরণ সংস্করণ’ হিসেবে বাজারে আনতে চাচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি।

মার্সেইডিজ-বেঞ্জের মালিক প্রতিষ্ঠান ডাইমলারের নতুন প্রধান নির্বাহী ওলা ক্যালিনিয়াস এবং ডাইমলার এজি’র ‘ডিজিটাল ট্রান্সফর্মেশন’ বিভাগের প্রধান সাশা প্যালেনবার্গের সাম্প্রতিক টুইট বার্তায় উঠে এসেছে শূন্য কার্বন নিঃসরণ সংস্করণের গাড়ির’ বিষয়টি। — খবর এনগ্যাজেটের।

দুই বছর আগেই অবশ্য প্রতিষ্ঠানটি জানিয়েছিল, নিজেদের সব মডেলেরই বৈদ্যুতিক সংস্করণ তৈরির পরিকল্পনা রয়েছে তাদের।

এ বিষয়ে গাড়ি বিষয়ক সংবাদ ও রিভিউ সাইট অটোব্লগ বলছে, ওয়াগন জাতীয় যে কোনো গাড়িকে ‘বৈদ্যুতিক বাহনে’ রূপান্তর করলে, সেটিতে বাড়তি ওজন যোগ হবে। মূলত গাড়িটির শক্তি যোগানোর জন্য যে ব্যাটারিটির প্রয়োজন পড়বে, তাতেই বাড়বে ওজন।

তবে, এ সমস্যা সমাধানে মার্সেইডিজ-বেঞ্জ প্রকৌশল খাতে যে বিনিয়োগ করতে দ্বিধাবোধ করবে না, সে বিষয়টি এখন অনেকটাই পরিষ্কার।

ওলা ক্যালিনিয়াস বলেছেন, “জি ক্লাস মডেলটির উৎপাদন বন্ধ করে দেওয়া হবে কি না তা নিয়ে আগে আলোচনা হয়েছিল। কিন্তু আমি মনে করি, শেষ কোনো মার্সেইডিজ তৈরি করা হলে, সেটির মডেল হওয়া উচিত ‘জি ক্লাস’।

উল্লেখ্য, গত বছরই নিজেদের প্রথম বৈদ্যুতিক এসইউভি দেখিয়েছিল গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি। আর ঠিক দুই বছর আগে সাবেক মার্সেইডিজ প্রধান ডিটার জেতশ্চা জানান, ২০২২ সাল নাগাদ নিজেদের সব মডেলের গাড়ির বৈদ্যুতিক সংস্করণ আনার পরিকল্পনা হাতে নিয়েছে মার্সেইডিজ-বেঞ্জ।

মন্তব্য