রেল কর্তৃপক্ষকে যে নির্দেশ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

লাশ পড়ে আছে চারদিক ট্রেনের বগি উল্টে গেছে

প্রজন্ম ডেস্ক

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলায় দুটি ট্রেনের মুখোমুখি সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত ও শতাধিক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এরই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি রেল কর্তৃপক্ষকে নির্দেশ দিয়েছেন চালকদের যেন আরও উন্নত প্রশিক্ষণ দিয়ে তারপর ট্রেন চালাতে দেয়া হয়। এছাড়াও রেল সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হওয়ারও নির্দেশ দেন প্রধানমন্ত্রী।

মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে বাংলাদেশ রপ্তানি প্রক্রিয়াকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষের (বেপজা) গভর্নর বোর্ডের ৩৪তম সভায় এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবায় ট্রেন দুর্ঘটনার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। এ ব্যাপারে আমাদের রেলে যারা কাজ করেন তাদের সতর্ক করা উচিত। সেই সঙ্গে যারা রেলের চালক তাদেরও প্রশিক্ষণ প্রয়োজন।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বুলবুলের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারলাম কিন্তু দুর্ভাগ্য যে এখানে দুর্ঘটনা ঘটে গেল।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘ঠিক জানি না কেন এই শীত মৌসুম আসলেই কিন্তু আমাদের দেশে নয় সারাবিশ্বেই রেলের দুর্ঘটনা ঘটতে থাকে।’

রেল যোগাযোগ নিরাপদ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘রেল যোগাযোগ সবচেয়ে নিরাপদ এবং আমরাও এ ব্যাপারে গুরুত্ব দিচ্ছি।’তিনি বলেন, ‘আমরা নতুন রেল সম্প্রসারণ করে যাচ্ছি পণ্য পরিবহন মানুষ পরিবহন সবক্ষেত্রেই রেল নিরাপদ।’ উদ্ধার তৎপরতা প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের রেলমন্ত্রী ওখানে চলে গেছেন উদ্ধার ও প্রয়োজনীয় সবকিছু করা হচ্ছে।’

মন্তব্য