বাতিল হতে পারে আর্জেন্টিনার ইসরায়েল সফর!

প্রজন্ম ডেস্ক  

উরুগুয়ের বিপক্ষে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচ খেলতে ইসরায়েল সফরে যাবে আর্জেন্টিনা। ইসরায়েলের রাজধানী তেল আবিবে অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ম্যাচটি। কিন্তু নিরাপত্তাহীনতার কারণে এই ম্যাচটি বাতিল কিংবা অন্য কোনো ভেন্যুতে স্থানান্তরিত হতে পারে বলে জানিয়েছে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম ‘মার্কা’।

চলতি বছরের ১৮ নভেম্বর তেল আবিবের নিউ ব্লুমফিল্ড স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হওয়ার কথা আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের। এই ম্যাচ দিয়েই তিন মাসের নিষেধাজ্ঞা শেষে আর্জেন্টিনার জার্সিতে ফিরবেন লিওনেল মেসি। কিন্তু ইসরায়েল ও ফিলিস্তিনের মধ্যকার চলমান সংঘর্ষের কারণে ম্যাচ আয়োজন নিয়ে অনিশ্চয়তা দেখা দিয়েছে।

সম্প্রতি ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের হামলায় স্বাধীনতাকামী ‘ইসলামিক জিহাদ আন্দোলন ফিলিস্তিন’র অন্যতম শীর্ষ নেতা বাহা আবু আল-আত্তা নিহত হয়েছেন। এই হামলার জবাবে ওই সংগঠনের পক্ষ থেকে ইসরায়েলের ভূখণ্ডে ১৫০টি রকেট ছোড়া হয়েছে।

গাজা থেকে রকেট ছোড়ার ঘটনায় ইসরায়েলের তেল আবিবসহ বেশ কয়েকটি শহরে বেশ কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। ইসরায়েলের বহু মানুষ নিরাপত্তাহীনতার ভয়ে আশ্রয়কেন্দ্রে অবস্থান করছেন। এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচটি নিয়ে চিন্তায় পড়ে গেছে আর্জেন্টিনা ও উরুগুয়ের ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন।
এর আগে ২০১৮ বিশ্বকাপের আগে ইসরেয়েলের বিতর্কিত শহর জেরুজালেমে একটি প্রীতি ম্যাচ খেলতে অস্বীকৃতি জানিয়েছিল আর্জেন্টিনা। ম্যাচটি না খেলতে ফিলিস্তিনি ফুটবল ফেডারশনের পক্ষ থেকে মেসিদের উদ্দেশে আহবান জানানো হয়েছিল। এসব নিয়ে সেসময় ফিফা’র কাছে নালিশও জানিয়েছিল ইসরায়েল।

মন্তব্য