বিমানে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ

বিমানে এলো ৮২ টন পেঁয়াজ

প্রজন্ম ডেস্ক

বাজারে অস্থিরতা কাটাতে বিদেশ থেকে কার্গো বিমানে করে পেঁয়াজ আনার যে ঘোষণা সরকার দিয়েছিল, তার প্রথম চালান এসেছে।

পাকিস্তানের করাচি থেকে ৮২ টন পেঁয়াজ নিয়ে কার্গো বিমানটি বুধবার সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বলে বেসরকারি বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের পরিচালক এ এইচ এম তৌহিদ উল আহাসান জানান।

ঢাকা কাস্টমস হাউজের সহকারী কমিশনার সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আজারবাইজানভিত্তিক সিল্কওয়েজের উড়োজাহাজে পেঁয়াজের এই চালান এনেছে সাদ ইন্টারন্যাশনাল নামের একটি কোম্পানি।

ভারত পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ার পর গত সেপ্টেম্বরের শেষ দিক থেকে বাংলাদেশে এই নিত্যপণ্যের দাম হু ‍হু করে বাড়তে থাকে। প্রতি কেজি পেঁয়াজের দর ৩০-৪০ টাকা থেকে আড়াইশ টাকায় উঠে যায়।

এই পরিস্থিতিতে সরকার মিশর, তুরস্কসহ কয়েকটি দেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত নেয়। জাহাজে আনতে দেরি হবে বলে উড়োজাহাজে পেঁয়াজ আনার সিদ্ধান্তও নেওয়া হয়।

এদিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স বুধবার আকাশপথে পেঁয়াজ আমদানির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য মাশুল জনস্বার্থে মওকুফের ঘোষণা দিয়েছে।

আকাশপথে যে কোনো পচনশীল দ্রব্য পরিবহনের ক্ষেত্রে প্রতি কেজিতে ১৮ টাকা চার্জ দিতে হয়। এই সিদ্ধান্তের ফলে তা আর দিতে হচ্ছে না।

পাকিস্তানের বাণিজ্য উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (টিডিএপি) এক কর্মকতা জানিয়েছিলেন, অন্তত ১২টি কন্টেইনারভর্তি পেঁয়াজ বাংলাদেশে পাঠানো হবে। করাচি-ভিত্তিক প্রতিষ্ঠান রোশান এন্টারপ্রাইজের সঙ্গে বাংলাদেশের তাশো এন্টারপ্রাইজের মধ্যে পেঁয়াজ আমদানি-রপ্তানি বিষয়ক একটি চুক্তি হয়েছে। চুক্তি মোতাবেক প্রতি টন চালান ৬০০ ডলার মূল্যে পাকিস্তান থেকে পেঁয়াজ আমদানি করবে বাংলাদেশ।

মন্তব্য