কোহলি দুর্দান্ত, তাইজুল উড়ন্ত

প্রজন্ম ডেস্ক

ভারতের অধিনায়ককে ফেরাতে যখন হাসফাঁস করছিল বাংলাদেশ তখন তাইজুল করলেন অবিশ্বাস্য কিছু। কিং কোহলিকে ফেরাতে অবিশ্বাস্য কিছু করতেই হয়! বোলাররা যখন নির্বিষ তখন তাইজুল ধরলেন ধ্রুপদি এক ক্যাচ। তাতে ফিরলেন ভারতের অধিনায়ক। ফেরার আগে ইডেন মাতালেন ১৩৬ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলে। কোহলির আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ারের ৭০তম সেঞ্চুরি, টেস্টে ২৭তম। ৫৯ রানে অপরাজিত থেকে প্রথম দিন শেষ করেছিলেন কোহলি। দ্বিতীয় দিনও তার দাপট চলে ২২ গজে। চা-বিরতির আগেই কোহলি তুলে নেন সেঞ্চুরি।

তিন অঙ্ক ছোঁয়ার পর তার শাসন আরও বেড়ে যায়। পেসার আবু জায়েদ রাহীকে পরপর তিন চার মেরে বুঝিয়ৈ দিয়েছিলেন আজ ডাবল ছুঁয়েই ছাড়বেন। ওই ওভারে রাহী দিয়েছিলেন ১৯ রান। তার মাঝ ব্যাটের শটগুলো প্রত্যেকটিই ছিল চোখ ধাঁধানো, মনোমুগ্ধকর। ডানহাতি ব্যাটসম্যান এগিয়ে যাচ্ছিলেন সেই পথে।

কিন্তু তাইজুলকে ‘টপকাতে’ পারেনি কোহলির ব্যাট ছুঁয়ে আসা বল। ইবাদত কি বোলিং করেছেন তা নিজেই বলতে পারবেন। তিন স্লিপ, গালিতে ফিল্ডার রেখে বল করছিলেন লেগ স্ট্যাম্পের উপর! কোহলির সুইট টাইমিংগুলো হচ্ছিল পারফেক্ট। আউটের বলটিও ছিল তেমন কিছু। কিন্তু সেখানে প্রহরী ছিলেন তাইজুল।

লং লেগে দাঁড়িয়ে মাথার উপর দিয়ে আসা বল লাফিয়ে তালুবন্দি করে ফেলেন তাইজুল! অবিশ্বাস্য, অকল্পনীয়। কোহলিও হতভম্ব হয়ে দাঁড়িয়ে! ব্যাট তাক করে যেন বললেন, ‘ও কি করলো এটা?’ বাজে বোলিংয়ের পরও তাইজুল কৃতিত্বে কোহলির উইকেট নিজের পকেটে পুরলেন ইবাদত। এরপর নিজের ট্রেডমার্ক স্যালুট।

উড়ন্ত তাইজুলের দুর্দান্ত ক্যাচে কোহলির ১৯৪ বলে ১৩৬ রানের সাজানো ইনিংসটি কাটা পরে। ইডেনে নিজের শেষ ইনিংসেও কোহলি পেয়েছিলেন সেঞ্চুরি। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ২০১৭ সালে করেছিলেন ১০৪ রান। আজ তার ব্যাটিং ভয় দেখাচ্ছিল। হয়তো ডাবলেই চোখ ছিল। কিন্তু তাইজুল অবিশ্বাস্য কিছু করে কোহলিকে পাঠালেন সাজঘরে।

মন্তব্য