বাইমহাটি স্কুলের ঘটনা সত্য হলে ব্যবস্থা নেবেন সচিব

প্রজন্ম ডেস্ক

বিশেষ প্রদর্শনী আয়োজন উপলক্ষে ক্লাস বন্ধ রেখে শিক্ষার্থীদের দিয়ে শারীরিক কসরত করানোর ঘটনা সত্য হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা সচিব মো. আকরাম আল হোসেন।

অনলাইন সংবাদমাধ্যম ‌সোমবার ‘সচিব আসবেন বলে ১৪ দিন ক্লাস বন্ধ’  শিরোনামে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, সচিবকে বিদ্যালয়ে অভ‌্যর্থনা জানাতে বিশেষ প্রদর্শনীর ব‌্যবস্থা করা হবে। এ জন্য স্কুলের পাশে একটি খোলা জায়গায় সকাল ৮টা থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের নানা ধরনের শারীরিক কসরত করানো হচ্ছে। এ কারণে দুই সপ্তাহ ধরে বিদ্যালয়ে ক্লাস বন্ধ আছে। দুপুরে এক ঘণ্টা খাওয়ার বিরতি দেয়া হয়। বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষকরা এসব তত্ত্বাবধান করছেন। অথচ আগামী ৮ ডিসেম্বর থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের বার্ষিক পরীক্ষা শুরু হবে।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মঙ্গলবার সকালে সচিব বলেন, বিষয়টি আমাকে কেউ জানায়নি। এটি উচিত নয়। এখন যেহেতু এ বিষয়ে আপনারা জানালেন, অবশ্যই পুরোপুরি খোঁজ-খবর নেওয়া হবে। বিশেষ প্রদর্শনীর প্রস্তুতির জন্য ক্লাস বন্ধ রাখা হচ্ছে যদি এ বিষয়ে সত্যতা পাওয়া যায় তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সচিব আরো বলেন, বাইমহাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ‌্যালয় বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করে। একই জেলার ভারতেশ্বরী হোমসের মতো তারাও বিভাগীয় ও ঢাকায় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে অংশ নেয়। কিন্তু এখন যে বিষয়টির কথা বলা হচ্ছে, এটি উচিত নয়।

বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে যোগদান উপলক্ষে চলতি সপ্তাহে টাঙ্গাইল যাচ্ছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এ সচিব। এর মধ্যে একটি প্রশাসনিক ভবনের নির্মাণকাজ উদ্বোধনের জন্য তার ওই স্কুলে যাওয়ার কথা রয়েছে।

মন্তব্য