খালেদা জিয়ার সেবায় থাকছেন গৃহকর্মী ফাতেমা

খালেদা জিয়ার সেবায় থাকছেন গৃহকর্মী ফাতেমা

প্রজন্ম ডেস্ক

কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সেবায় থাকছেন তার গৃহকর্মী মোছাম্মৎ ফাতেমা। রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) আদালতের নির্দেশ হাতে পাওয়ার পরই ফাতেমাকে খালেদা জিয়ার সেবায় রাখার অনুমতি দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানাউল্লা মিয়া ও কারা অধিদফতরের একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) আদালতের কাছে খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে গৃহকর্মী রাখার আবেদন জানিয়েছিলেন তার আইনজীবীরা। ওইদিন আদালতের নির্দেশ না থাকায় তার সঙ্গে ফাতেমাকে রাখতে দেওয়া হয়নি।

জানতে চাইলে কারা অধিদফতরের দায়িত্বশীল একজন কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করার শর্তে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘ডিভিশনের নির্দেশনার পাশাপাশি তারা খালেদা জিয়ার গৃহকর্মী ফাতেমাকে রাখারও নির্দেশনা দিয়েছেন আদালত। ওই নির্দেশনা হাতে পাওয়ার পরই রবিবার (১১ ফেব্রুয়ারি) খালেদার সঙ্গে তার গৃহকর্মী ফাতেমাকেও রাখা হয়েছে। এছাড়া নারী কারারক্ষীরা রয়েছেন খালেদা জিয়ার সেল এলাকায়।’

জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় খালেদা জিয়ার আইনজীবী সানা উল্লাহ মিয়া বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘গৃহকর্মী ফাতেমাকে খালেদা জিয়ার সঙ্গে থাকার অনুমতি দিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। এর আগে তারা এ সংক্রান্তে আদালতের নির্দেশনা তাদের হাতে পৌঁছে দিয়েছেন।’

প্রসঙ্গত, কারা বিধির ৯৪৮ বিধিতে বলা হয়েছে, ‘যখন কোনও কারাগারে মাত্র একজন মহিলা বন্দি থাকেন এবং সেখানে যদি কোনও মহিলা কারারক্ষী না থাকেন, তবে জেল সুপার সে মহিলা বন্দির একজন পরিচিতি মহিলাকে তার সঙ্গে কারাগারে থাকার অনুমতি দিতে পারেন। যদি ওই মহিলার সঙ্গে থাকার জন্যে এরূপ নিজস্ব কোনও মহিলা না থাকে, তবে জেল সুপার নিজেই একজন মহিলাকে সাময়িকভাবে কারারক্ষীর দায়িত্বে নিয়োজিত করে কারা মহাপরিদর্শকের (আইজি পিজন্স) অনুমোদন গ্রহণ করবেন।’

এ প্রসঙ্গে খালেদা জিয়ার আরেক আইনজীবী আমিনুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘কারা বিধির ৬১৭ অনুযায়ী একজন ডিভিশন-১-প্রাপ্ত বন্দি যা-যা সুবিধা পাওয়ার কথা, সবই পাবেন খালেদা জিয়া। বাইরে উন্নত জীবনযাপনে অভ্যস্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী হিসেবে গৃহপরিচারিকা রাখা, পত্র-পত্রিকা ও টেলিভিশনসহ সব সুবিধাই তিনি পাবেন। তার ব্যবহারের সব জিনিসই বিধি অনুযায়ী কারা কর্তৃপক্ষ তাকে দিতে বাধ্য।’

এদিকে, কারা সূত্র জানায়, বর্তমানে একজন নারী ও একজন পুরুষ ডেপুটি জেলারের তত্ত্বাবধানে পুরনো কেন্দ্রীয় কারাগারের ডে কেয়ার সেন্টারটি সাব জেল হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে। এর আগে বৃহস্পতিবার তাকে এই কারাগারের প্রশাসনিক ভবনে রাখা হয়েছিল। এছাড়া খালেদা জিয়ার নিরাপত্তা ও সার্বিক দেখাশোনার জন্য কয়েকজন নারী কারারক্ষী সেখানে পালাক্রমে দায়িত্ব পালন করছেন।

উল্লেখ্য, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বৃহস্পতিবার (৮ ফেব্রুয়ারি) খালেদা জিয়ার ৫ বছরের কারাদণ্ডাদেশ ঘোষণা করেন রাজধানীর বকশীবাজারের আলিয়া মাদ্রাসার মাঠে স্থাপিত ড. আখতারুজ্জামানের পঞ্চম বিশেষ জজ আদালত। এরপর তাকে রাজধানীর নাজিম উদ্দিন রোডের পুরনো ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর কারাগারের ডে কেয়ার সেন্টারটিকে ‘সাব জেল’ ঘোষণা করে সেখানে রাখা হয় তাকে।

মন্তব্য