হলি আর্টিজান মামলার রায়ের ফলাও প্রচার বিশ্ব মিডিয়ায়

প্রজন্ম ডেস্ক 

ঢাকার গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারিতে সন্ত্রাসী হামলার মামলায় আট আসা‌মির মধ্যে সাতজনের মৃত্যুদণ্ড দি‌য়ে‌ছেন আদালত। তবে খালাস পেয়েছেন একজন। এ রায় আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমেও ফলাও করে প্রচারিত হচ্ছে।

বুধবার (২৭ নভেম্বর) দুপুরে ঢাকার সন্ত্রাসবিরোধী বিশেষ ট্রাইব্যুনালে রায় ঘোষণার পরপরই আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা লিখেছে, ‘হলি আর্টিজান ক্যাফেতে হামলা: ঢাকার আদালতে সাতজনের মৃত্যুদণ্ড’।

রয়টার্স লিখেছে, ‘বাংলাদেশে ২০১৬ সালের ক্যাফে হামলায় সাতজনের মৃত্যুদণ্ড ঘোষণা’।

তবে দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিদের পরিচয় দেওয়ার ক্ষেত্রে ভিন্ন আচরণ করেছে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি। সন্ত্রাসীদের ‘ইসলামিস্ট’ (ইসলামপন্থি) উল্লেখ করে তারা লিখেছে, ‘২০১৬ সালের ক্যাফে হামলায় সাত ইসলামপন্থির মৃত্যুদণ্ড’।

চীনের সংবাদমাধ্যম সিনহুয়া লিখেছে, ‘২০১৬ সালের ক্যাফে হামলায় সাত জঙ্গিকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে বাংলাদেশ’।

২০১৬ সালের ১ জুলাই রাতে গুলশানের হলি আর্টিজান রেস্টুরেন্টে হামলা চালিয়ে বিদেশি নাগরিকসহ ২০ জনকে হত্যা করে নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন নব্য জেএমবির আত্মঘাতী সদস্যরা। তাদের গুলিতে দুই পুলিশ কর্মকর্তা নিহত হন। পরে কমান্ডো অভিযানে নিহত হয় পাঁচ জঙ্গি।

বুধবারের রায়ে ‌মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসা‌মিরা হ‌লেন- জাহাঙ্গীর হোসেন ওরফে রাজীব গান্ধী, আসলাম হোসেন ওরফে র‌্যাশ, আব্দুস সবুর খান, রাকিবুল হাসান রিগ্যান, হাদিসুর রহমান, শরিফুল ইসলাম ওরফে খালেদ ও মামুনুর রশিদ। খালাস পেয়েছেন মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান।

 

মন্তব্য