ইয়াসিরের সেঞ্চুরির পরও পাকিস্তানের সামনে কঠিন চ্যালেঞ্জ

প্রজন্ম ডেস্ক

প্রথম ইনিংসে ফলোঅন এড়াতে পারেনি পাকিস্তান। দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে সফরকারীরা।

অ্যাডিলেডে চলছে অস্ট্রেলিয়ার দাপট। আরেকটি টেস্ট হারের শঙ্কায় পাকিস্তান। তবে নাটকীয় কিছু হলে ম্যাচ টাই হতেও পারে। অস্ট্রেলিয়ার করা ৩ উইকেটে ৫৮৯ রানের জবাবে পাকিস্তান প্রথম ইনিংসে তুলেছে ৩০২ রান।

দ্বিতীয় দিন বাবর আজমের সঙ্গে অপরাজিত ছিলেন ইয়াসির শাহ। কে জানত রোববার তার জন্য স্মরণীয় কিছু অপেক্ষা করছে! দুজনের ব্যাটে পাকিস্তান প্রতিরোধ গড়েছে তৃতীয় দিন। দুজনই দলকে বড় ইনিংস উপহার দেন। কিন্তু বাবর আজম একরাশ হতাশা নিয়ে ফেরেন সাজঘরে। আর ইয়াসির শাহ মাতেন উদযাপনে। একজন পেয়েছেন সেঞ্চুরি। আরেকজন সেঞ্চুরি মিস করেছেন মাত্র ৩ রানের জন্য।

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টানা দুই টেস্টে অতিথি দলের ক্রিকেটারদের সেঞ্চুরির সংখ্যা খুব কম। বাবর আজম সেই তালিকায় নাম উঠাতেন আজই। যেভাবে খেলছিলেন, সেঞ্চুরিটা তার প্রাপ্যই ছিল। কিন্তু মাত্র ৩ রানের জন্য সেঞ্চুরি পাননি। আউট হয়েছেন ৯৭ রানে। স্টার্কের গুড লেংথে পড়ে বেরিয়ে যাওয়া বলে ড্রাইভ করেছিলেন বাবর। ব্যাটের কানায় লেগে ক্যাচ যায় উইকেটের পেছনে। ডান দিকে ডাইভ দিয়ে এক হাতে দারুণ ক্যাচ নেন উইকেটকিপার টিম পেইন। সপ্তম উইকেট জুটিতে ইয়াসির শাহর সঙ্গে বাবর যোগ করেন ১০৫ রান।

বাবর না পেলেও ইয়াসির ঠিকই সেঞ্চুরি পেয়েছেন। ৮ নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে খেলেছেন অবিশ্বাস্য ইনিংস। নবম উইকেটে মোহাম্মদ আব্বাসের সঙ্গে ৮৭ রানের জুটি গড়ার পথে তুলে নেন ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরি। স্বীকৃত ক্রিকেটেই এটি তার প্রথম সেঞ্চুরি।শেষ ব্যাটসম্যান হিসেবে আউট হওয়ার আগে ২১৩ বলে ১৩ চারে ১১৩ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন ইয়াসির। তাতে পাকিস্তান ফলোঅন এড়াতে পারেনি।

দ্বিতীয় ইনিংসেও ব্যর্থ পাকিস্তানের টপ অর্ডার। বৃষ্টির আগে ৩ উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান তুলে ৩৯ রান। সাজঘরে ফিরেছেন ইমাম (০), আজহার (৯) ও বাবর (৮)। শান মাসুদ ১৪ ও আসাদ শফিক ৮ রানে অপরাজিত থেকে দিন শেষ করেছেন।

প্রথম ইনিংসে ৬ উইকেট পাওয়া স্টার্ক দ্বিতীয় ইনিংসে তুলেছেন ১ উইকেট। হ্যাজেলউডের পকেটে গেছে ২ উইকেট। অস্ট্রেলিয়াকে ব্যাটিংয়ে পাঠাতে পাকিস্তানকে করতে হবে আরও ২৪৮ রান। নয়তো আরেকটি ইনিংস হারের লজ্জা পেতে হবে আজহার আলী দলকে।

মন্তব্য