তরুণীর মাথা কেটে মগজ দিয়ে ভাত খেল যুবক !

প্রজন্ম ডেস্ক

খালি পেটে কারো বকবকানি শুনতে আমাদের কারুরই ভালো লাগে না। তাই বলে বিরক্তকারীর সাথে এমন ঘটনা ঘটানোর কথা কল্পনাও করা যায় না।

এক যুবক স্রেফ কথা শুনে বিরক্ত হয়ে মেরে ফেলেছেন এক নারীকে। এমনকি মারার পর সেই নারীর মগজ দিয়ে ভাতও খেয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে ফিলিপিন্স, যুবকের নাম লিয়াডো ব্যাগটগ।

লিয়াডো খালি পেটে প্রচন্ড ক্ষুধা নিয়ে ফিরছিলেন বাসায়। পথে এক নারী তাকে বিরক্ত করা শুরু করেন। সেই নারী ইংরেজি ছাড়া কোনো ভাষা জানতেন না আবার লিয়াডো ইংরেজি জানতেন না।

তাই বিরক্ত হয়ে লিয়াডো সেই নারীর মাথাই কেটে ফেলেন এবং মাথার মগজ নিজের বাসায় নিয়ে গিয়ে রান্না করে খেয়ে ফেলেন। প্রতিবেশীরা জানিয়েছেন, লিয়াডো সবসময় মদ খেতেন এ কারণে তার মানসিক স্থিতি ঠিক থাকত না। হয়ত এ কারণেই এমন নৃশংস কান্ড ঘটিয়েছেন লিয়াডো।

পুলিশ সূত্রে খবর, লিয়াডো মেয়েটিকে একটি জনমানবশূন্য এলাকায় নিয়ে যায়। মেয়েটিকে কোমরের বেল্ট দিয়ে বেঁধে ফেলে মাথায় কোপ মারে। তাতেও ক্ষান্ত হয়নি সে। এক টুকরো কাপড় জোগাড় করে লিয়াডো।

তাতেই বেঁধে মুন্ডুটি হাতে নিয়ে বাড়িও আসে সে। ঠান্ডা মাথায় সে ভাতও রান্না করে। তারপর কাটা মুন্ডুর ঘিলু বের করে ভাতে মেখে খেয়েও ফেলে। পরে খুলিটা জানলা দিয়ে ছুঁড়ে ফেলে দেয়। তার এই স্বীকারোক্তিতে চমকে গিয়েছে ফিলিপিন্স পুলিশও।

মন্তব্য