কোলে তুলে গানের মঞ্চেই নেহা কক্করকে বিয়ের প্রস্তাব

প্রজন্ম ডেস্ক

খুব চেনা গানের সুর মনে করিয়ে দিল। আর বাধ মানল না আবেগ।

রিয়‌্যালিটি শোয়ের মঞ্চে কেঁদে ভাসালেন বলিউডের জনপ্রিয় গায়িকা নেহা কক্কর। কিন্তু অভাবনীয়ভাবে, সেই মঞ্চেই নেহার ভাঙা মন জুড়তে এগিয়ে এলেন অনুষ্ঠানের সঞ্চালক আদিত‌্য নারায়ণ, যিনি নিজেও সুগায়ক।

গান গেয়ে নেহাকে শুধু তিনি হাসালেনই না, পাশাপাশি এও ঘোষণা করে দিলেন যে বাড়ি যদি ফেরেন, তাহলে নেহাকে বিয়ে করেই। যদিও পুরোটাই মজার ছলে। নাটকীয় এই ঘটনাপ্রবাহ সোনি চ‌্যানেলের ‘ইন্ডিয়ান আইডল ১১’ অনুষ্ঠানের। ঠিক কী ঘটেছিল শোয়ে ?

সম্প্রতি একটি পর্বে ‘অ‌্যায় দিল হ‌্যায় মুশকিল’-এর ‘চন্না মেরেয়া’ গানটি গাইতে শুরু করেন এক প্রতিযোগী। নাম অদ্রিজ ঘোষ। অদ্রিজের গান শেষ হওয়ার পর, আচমকাই মাইক্রোফোন হাতে নিয়ে ওই একই গান গাইতে শুরু করে দেন নেহা। শুধু তাই নয়। সঙ্গে এও জানান, গানটি তিনি তার প্রাক্তনের জন‌্য গাইছেন।

গান গাইতে গাইতেই চোখ ছল ছল করে ওঠে নেহার। তিনি কেঁদে ফেলেন। আর এই দৃশ‌্য দেখেই মন খারাপ হয়ে যায় শোয়ে উপস্থিত বিচারকদের। এর পরই গায়িকার মন ভাল করতে মাঠে নেমে পড়েন বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক উদিত নারায়ণের পুত্র আদিত‌্য।

নেহা কক্করকে একেবারে কোলে তুলে নেন তিনি। সঙ্গে শুরু করেন গান- ‘মুঝসে শাদি করোগি’। আদিত্যর এমন কাণ্ডে হেসে ওঠেন নেহা। মুখে হাসি ফুটে ওঠে বিচারকদেরও। তবে গল্প এখানেই শেষ নয়। মজার ছলেই আদিত্য ঘোষণা করেন, নেহাকে বিয়ে করে তবেই বাড়ি ফিরবেন, নচেৎ নয়।

প্রসঙ্গত, কিছুদিন আগে নেহা কক্করকে মঞ্চে জড়িয়ে ধরে চুমু খান এক প্রতিযোগী। সেবার অডিশনে এক ব্যক্তি অনেক উপহার নিয়ে মঞ্চে প্রবেশ করেন। রাজস্থানি পোশাকে ছিলেন তিনি। মাথায় পরেছিলেন পাগড়ি। নেহাকে তিনি জিজ্ঞাসা করেন, ‘চিনতে পারছেন?’

মন্তব্য